দেশ 

খাদ্য পণ্যে জিএসটি, সংসদের ভিতরে বাইরে আন্দোলনে কংগ্রেস

বাংলার জনরব ডেস্ক: জিএসটি কাউন্সিলের প্রস্তাব মত, সেই মতো গতকাল থেকে প্যাকেটবন্দি লেবেল সাঁটা চাল, ডাল, আটা, মুড়ি, দই, লস্যির মতো খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে। একদিকে যখন ডলার প্রতি টাকার দাম ৮০ ছুঁয়েছে, অন্যদিকে তখন ৫ শতাংশ জিএসটি বসেছে প্যাকেটবন্দি লেবেল সাঁটা খাদ্যেপণ্যে। এর মধ্যে রয়েছে রোজকার হেঁসেলের চাল, ডাল, আটা, মুড়ি, দই, লস্যি, পনির, গুড়, মধু, বাটার মিল্ক। অন্যদিকে হাসপাতালের খরচও বেড়েছে। ICU ছাড়া ৫ হাজার টাকা বা তার বেশি মূল্যের কেবিনেও এবার থেকে দিতে হবে ৫ শতাংশ জিএসটি। এতদিন জিএসটির বাইরে থাকা দিনে ১ হাজার টাকা পর্যন্ত ভাড়ার হোটেলের…

আরও পড়ুন
দেশ 

Sonia Gandhi : আটদিন পর হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী

বাংলার জনরব ডেস্ক : আটদিন পর হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী । তিনি কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় তাঁর শরীরে সমস্যা দেখা দিয়েছিল। এই আবহে রাজধানীর স্যার গঙ্গারাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। আজকে তাঁকে ছাড়া হল হাসপাতাল থেকে। এর আগে ১২ জুন সোনিয়াকে স্যর গঙ্গারাম হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। কোভিডের জেরে ফাঙ্গাল সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছিলেন সোনিয়া। জানা যায়, শ্বাসনালীতে সংক্রমণের কারণে তাঁর নাক দিয়ে রক্ত পড়ছিল। অবশ্য হাসপাতালে ভর্তি হতেই চিকিৎসায় সাড়া দেন সোনিয়া। আপাতত তিনি বাড়িতে বিশ্রাম করবেন। এর আগে গত ১১ জুন নতুন করে কংগ্রেস…

আরও পড়ুন
দেশ 

Sonia Gandhi : সোনিয়া গান্ধীর শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি

বাংলার জনরব ডেস্ক : সোনিয়া গান্ধীর শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে।তাঁর নাক দিয়ে রক্তপাত হচ্ছে। পাশাপাশি শ্বাসযন্ত্রে ছত্রাক সংক্রমণও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এক বিবৃতিতে এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ জানিয়েছেন, ‘গত ১২ জুন কংগ্রেস সভাপতিকে গঙ্গারাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কোভিড সংক্রমণের জেরে তাঁর নাক দিয়ে প্রচুর রক্তপাত হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাঁর চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তাঁর শ্বাসযন্ত্রের নিম্নাংশে ছত্রাক সংক্রমণ ঘটেছে। কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে তাঁকে’।    

আরও পড়ুন
অন্যান্য কলকাতা 

National Herald Case : মোদি সরকার ক্লিনচিট দেওয়ার পরেও, কেন ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় রাহুল সোনিয়া টার্গেট! মোদি কী ভয় পাচ্ছেন?

সেখ ইবাদুল ইসলাম : ন্যাশনাল হেরাল্ড নামে পত্রিকাটি প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন জহরলাল নেহেরু। স্বাধীনতা সংগ্রামের দিনগুলিতে এই পত্রিকাটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছিল। জহরলাল নেহেরুর মালিকানা এবং সম্পাদনায় এই পত্রিকাটি পুষ্ট হয়েছে। পরবর্তীকালে এই পত্রিকাটি জাতীয়করণ করা হয়। কিন্তু জাতীয়করণ করার পর পত্রিকাটির ক্রমশ গুরুত্ব হারাতে থাকে একটা সময় সংকটের মধ্যে পড়ে যায়। পারিবারিক দায় এবং দায়িত্ব থেকে সোনিয়া গান্ধী ,নেহেরু –  গান্ধী পরিবারের বধু হিসাবে এই পত্রিকাটির পুনর্জাগরনের চেষ্টা করেছিলেন। এটাই তাঁর অপরাধ! তারপর দেখা গেল ২০১৪ সালের মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর ন্যাশনাল হেরাল্ড পত্রিকার দুর্নীতি মামলা শুরু করা হলো।…

আরও পড়ুন
দেশ 

Congress : বিজেপি আরএসএস-এর দেশজুড়ে বিভাজনের নীতির বিরুদ্ধে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী পর্যন্ত ‘ভারত জোড়ো’ কর্মসূচির ডাক কংগ্রেসের

বুলবুল চৌধুরী : বিজেপি আরএসএস-এর দেশজুড়ে বিভাজনের নীতির বিরুদ্ধে এবার রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানাতে চলেছে কংগ্রেস দল। রাজস্থানের উদয়পুরে আয়োজিত চিন্তন শিবিরে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে মহাত্মা গান্ধীর ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ৮০ বছর পূর্তি উপলক্ষে কংগ্রেস দল ভারত জড়ো কর্মসূচি নিয়েছে। আগামী দোসরা অক্টোবর থেকে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী পর্যন্ত এই কর্মসূচি পালন করবে কংগ্রেস দল। কংগ্রেসের চিন্তন শিবিরে সিদ্ধান্ত হয়েছে একটি পরিবার থেকে একজনই সাংসদ বিধায়ক হতে পারবেন। একই পরিবারের একাধিক ব্যক্তিকে সাংসদ বিধায়ক করা যাবে না। চিন্তন শিবিরে প্রস্তাব পাস হয়েছে কংগ্রেস দল থেকে রাজ্যসভায়…

আরও পড়ুন
দেশ 

CPIM: বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কংগ্রেসের আন্তরিকতা ও দায়িত্ববোধ নিয়ে প্রশ্ন উঠল সিপিএমের পার্টি কংগ্রেসে

বাংলার জনরব ডেস্ক : ঠিকভাবে বিজেপির বিরোধিতা করতে পারছে না কংগ্রেস এই অভিযোগে সরব হয়েছে সিপিএমের পার্টি কংগ্রেস । বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কংগ্রেসের আন্তরিকতা ও দায়িত্ববোধ নিয়ে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করল সিপিএম (CPIM)। আক্রমণের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন পার্টির দুই সেনাপতি সীতারাম ইয়েচুরি (Sitaram Yechuri) ও প্রকাশ কারাত (Prakash Karat)। দুই শীর্ষনেতা কংগ্রেস সম্পর্কে অবস্থান স্পষ্ট করে দেওয়ায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে পার্টি কংগ্রেসের মঞ্চে। কংগ্রেসকে নিয়ে দ্বিমত ছিল পার্টির অভ্যন্তরে। কেরল সিপিএম প্রবল কংগ্রেস (Congress) বিরোধী হলেও বাংলা-সহ অন্য রাজ্য নরম মনোভাব নিয়ে চলছিল। কিন্তু পার্টি কংগ্রেসের দ্বিতীয় দিনেই পরিস্থিতির…

আরও পড়ুন
অন্যান্য 

Congress Crisis : কংগ্রেসের জি-২৩-এর বিদ্রোহের কারণ এবং দলের পক্ষে কতটা ক্ষতিকর !

সেখ ইবাদুল ইসলাম : ২০১৪-এর পর থেকে কংগ্রেস দল কয়েকটি ক্ষেত্রে সাফল্য দেখাতে পারলেও সার্বিক অর্থে তেমন কোনো বড় সাফল্য দেখাতে পারছে না । এর কারণ কী? তা অবশ্যই পর্যালোচনা করার প্রয়োজন আছে । কিন্ত কংগ্রেসের প্রবীণ নেতাদের মধ্যে এই পর্যালোচনা নজরে পড়ছে না । এদের মধ্যে বেশ কয়েক জন প্রথম সারির নেতা আছেন কপিল সিব্বল থেকে শুরু করে গুলাম নবী আজাদ পর্যন্ত বিদ্রোহী বলে চিহ্নিত হয়েছেন । যাঁদেরকে সংবাদ মাধ্যমের ভাষায় জি-২৩ বলা হচ্ছে । প্রসঙ্গত বলা প্রয়োজন, জি-২৩ এর মধ্যে ভূপেন্দ্র সিংহ হুডা ছাড়া আর কারও তেমন জনসমর্থন…

আরও পড়ুন
দেশ 

Rahul vs Mohun Bhagvat :”একজন প্রকৃত হিন্দু মনে করেন প্রত্যেক ভারতীয় ডিএনএ আলাদা এবং স্বতন্ত্র,হিন্দুত্ববাদীরা মনে করেন, সব ভারতীয়র ডিএনএ এক”: রাহুল গান্ধী

বাংলার জনরব ডেস্ক:  গত শনিবার ধরমশালায় রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (RSS) প্রধান মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat) বলেন, ৪০ হাজার বছর ধরে প্রত্যেক ভারতীয়র শরীরে রয়েছে একই ডিএনএ (DNA)। ঠিক তার পর দিন রবিবার ভাগবতের এই বক্তব্যকে কার্যত খারিজ করেদিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। এদিন তিনি বলেন, প্রকৃত হিন্দুরা মনে করেন প্রত্যেক ভারতীয়র ডিনিএ আলাদা, হিন্দুত্ববাদীরা মনে করেন সব ভারতীয়র ডিএনএ এক। রবিবার রাহুল গান্ধী বলেন, “একজন প্রকৃত হিন্দু মনে করেন প্রত্যেক ভারতীয় ডিএনএ আলাদা এবং স্বতন্ত্র। হিন্দুত্ববাদীরা মনে করেন, সব ভারতীয়র ডিএনএ এক।” সাম্প্রতিককালে একাধিক বক্তৃতায় প্রকৃত হিন্দু ও…

আরও পড়ুন
দেশ 

Abhishek on Congress: বিরোধী ঐক্য নিয়ে কংগ্রেস দ্বিচারিতা করছে তৃণমূলের সাংসদীয় কমিটি-র বৈঠকে বললেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলার জনরব ডেস্ক : তৃণমূলের সাংসদীয় কমিটি-র বৈঠকে ফের কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন বিরোধী ঐক্য প্রসঙ্গে কংগ্রেস দ্বিচারিতা করছে। পশ্চিমবঙ্গে তারা তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ছে, আবার তৃণমূল যখন অন্য রাজ্যে যাচ্ছে কংগ্রেস তখন বিরোধী ঐক্য ভাঙার অভিযোগ তুলছে। মঙ্গলবার সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে যোগ দিতে দিল্লি গিয়েছেন অভিষক। রাজধানীতে প‌ৌঁছে তিনি প্রথমে তৃণমূল সাংসদদের ধরনা মঞ্চে যান। এর পর, সংসদে দলের লড়াইয়ের ক‌ৌশল কী হবে তা নিয়ে দলীয় সংসদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সূত্রের খবর, বৈঠকে অভিষেক সাংসদের বলেন, ‘‘বাংলায় আমাদের বিরুদ্ধে লড়ছে কংগ্রেস। আমরা গ‌োয়ার…

আরও পড়ুন
প্রচ্ছদ 

অতিরিক্ত কংগ্রেস বিরোধিতা মমতার ‘কমিটেড ’ ভোট হাত ছাড়া হতে পারে!

সেখ ইবাদুল ইসলাম : পশ্চিমবাংলায় সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনের পর আমরা খূশি হয়েছিলাম এই কারণে যে বাংলার মতো কৃষ্টি-সংস্কৃতি প্রধান রাজ্যে বিজেপি দল ক্ষমতায় আসতে পারেনি । অবশ্য আসা সম্ভবও ছিল না । কতকগুলো মিডিয়ার প্রচারে বিজেপির এখানে উত্থান হয়েছিল এর বাইরে তাদের কোনো অস্তিত্ব ছিল না । মিডিয়ার প্রচার এতো তীব্র ছিল যে তৃণমূলের অনেক নেতা-মন্ত্রীও ভেবে নিয়েছিলেন এবার হয়তো বিজেপিই বাংলায় ক্ষমতায় আসবে । বর্ষীয়ান সাংবাদিক থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা মনে মনে ভেবে নিয়েছিলেন বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় চলে আসছে। তা কিন্ত হয়নি । আমরা প্রথম…

আরও পড়ুন