দেশ 

Assembly Election 2022: কংগ্রেসের নির্বাচনী ইশতেহারে প্রতিশ্রুতির বন্যা, ৪০ লক্ষ চাকরির প্রতিশ্রুতি উত্তরপ্রদেশের জনতাকে দিলেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা

বাংলার জনরব ডেস্ক : আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ পরেই অনুষ্ঠিত হবে দেশের পাঁচটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। আর এই নির্বাচনের উপর নির্ভর করছে আগামী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে কে জিতবে? তাই স্বাভাবিক ভাবেই এই নির্বাচন দেশের জাতীয় দলগুলোর কাছে গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে কংগ্রেস ও বিজেপির কাছে এই নির্বাচনের গুরুত্ব অপরিসীম। 2024 সালের নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দিল্লিতে বিজেপি ক্ষমতায় থাকবে কি থাকবে না প্রায় ঠিক হয়ে যাবে এই পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর। তাই এই নির্বাচনে জিততে সব পক্ষই মরিয়া হয়ে উঠেছে। রাজনৈতিক পরিস্থিতি যা হয়েছে তাতে এটা স্পষ্ট হয়েছে পাঞ্জাব…

আরও পড়ুন
দেশ 

UP Election 2022: যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে প্রার্থী হচ্ছেন প্রখ্যাত দলিত নেতা চন্দ্রশেখর আজাদ ওরফে রাবণ, চাপে বিজেপি

বুলবুল চৌধুরী : উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই যেন আকর্ষণ বেড়ে চলেছে। একদিকে বিজেপি সমাজবাদী পার্টি ও কংগ্রেস দল ভাঙার চেষ্টা করছে অন্যদিকে সমাজবাদী পার্টি বিজেপির একের পর এক মন্ত্রীকে নিয়ে শোরগোল তুলে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশের রাজনীতিতে। এই প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে বিশিষ্ট দলিত নেতা এনআরসি আন্দোলনের অন্যতম মুখ চন্দ্রশেখর আজাদ আজ ঘোষণা করেছেন তিনি গোরক্ষপুর সদর বিধানসভা কেন্দ্রে যোগী আদিত্যনাথ এর বিরুদ্ধে ভোটে দাঁড়াবেন। চন্দ্রশেখর আজাদ ওরফে রাবণ দলিত নেতা হিসাবে সমগ্র উত্তর ভারতে পরিচিত মুখ। তাঁর প্রতিষ্ঠিত ভিম আর্মি রীতিমতো বিজেপি দলের কাছে ত্রাসে পরিণত হয়েছে। একইসঙ্গে চন্দ্রশেখর…

আরও পড়ুন
দেশ 

UP Election 2022 : উত্তরপ্রদেশের প্রথম দফার নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল জাতীয় কংগ্রেস, উন্নাও গণধর্ষণের নির্যাতিতার মা এবং এনআরসি – সিএএ আন্দোলনের নেত্রীকে প্রার্থী করে চমক দিল কংগ্রেস

বাংলার জনরব ডেস্ক : উত্তর প্রদেশ বিধানসভা ভোটের প্রথম দফার নির্বাচনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল জাতীয় কংগ্রেস। ১২৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ৫০ জনকে প্রার্থী করা হয়েছে মহিলাকে। একমাস আগেই কংগ্রেস নেতা নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী জানিয়েছিলেন উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে ৪০ শতাংশ আসন মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। পূর্ব প্রতিশ্রুতি মত প্রিয়াঙ্কা গান্ধী আজ বৃহস্পতিবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার সময় সেই কথা সাংবাদিকদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন এবারও আমরা ৪০ শতাংশ মহিলাকে প্রার্থী করেছি এবং ৪০ শতাংশ যুবককে প্রার্থী করেছি। তিনি আরো বলেন ,এই প্রার্থী তালিকার মধ্যে যে সকল মহিলা নির্যাতন অত্যাচারের…

আরও পড়ুন
প্রচ্ছদ 

অতিরিক্ত কংগ্রেস বিরোধিতা মমতার ‘কমিটেড ’ ভোট হাত ছাড়া হতে পারে!

সেখ ইবাদুল ইসলাম : পশ্চিমবাংলায় সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনের পর আমরা খূশি হয়েছিলাম এই কারণে যে বাংলার মতো কৃষ্টি-সংস্কৃতি প্রধান রাজ্যে বিজেপি দল ক্ষমতায় আসতে পারেনি । অবশ্য আসা সম্ভবও ছিল না । কতকগুলো মিডিয়ার প্রচারে বিজেপির এখানে উত্থান হয়েছিল এর বাইরে তাদের কোনো অস্তিত্ব ছিল না । মিডিয়ার প্রচার এতো তীব্র ছিল যে তৃণমূলের অনেক নেতা-মন্ত্রীও ভেবে নিয়েছিলেন এবার হয়তো বিজেপিই বাংলায় ক্ষমতায় আসবে । বর্ষীয়ান সাংবাদিক থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা মনে মনে ভেবে নিয়েছিলেন বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় চলে আসছে। তা কিন্ত হয়নি । আমরা প্রথম…

আরও পড়ুন
দেশ 

Congress: দেশজুড়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে কংগ্রেস সদ্য সমাপ্ত উপনির্বাচনে ইঙ্গিত স্পষ্ট , ২০২৪ -এ কী কেন্দ্রে পরিবর্তনের সরকার !

বাংলার জনরব ডেস্ক : কয়েক দিন আগে দেশের ৩টি লোকসভা ও ২৯টি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । তার ফলাফলে দেখা যাচ্ছে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে বিরোধীরা । ৩টি লোকসভা আসনের মধ্যে দুটিতেই জয় পেয়েছে বিরোধীরা । একটি আসন পেয়েছে কংগ্রেস , অন্যটি পেয়েছে বিরোধী শিবসেনা । এই দুটি আসনই বিজেপির দখলে ছিল । তবে একটি লোকসভা আসন বিজেপি জিতেছে । শুধুমাত্র অসম ছাড়া উত্তর ভারতের কোনো রাজ্যে উপনির্বাচনে ভাল ফল করতে পারেনি বিজেপি । কর্ণাটকে বিজেপির খাস তালুক থেকে একটি বিধানসভা আসন জিতেছে কংগ্রেস । হিমাচল প্রদেশের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্র…

আরও পড়ুন
অন্যান্য দেশ প্রচ্ছদ 

Indian National Congress : রাহুল-প্রিয়াঙ্কার নেতৃত্বেই দেশ বাঁচানোর লড়াইয়ে কংগ্রেস ঘুরেই দাঁড়াবেই!

মিডিয়ার প্রচারনায় শতাব্দী প্রাচীন কংগ্রেস দল নাকি অস্তিত্বের সংকটে পড়েছে ! বিষয়টি কতটা বাস্তব ? কেন সংকট তৈরি হচ্ছে? ক্ষমতায় থাকার সময় সব মধু খাওয়ার পর এখন কেন গান্ধী পরিবারকে নিশানা করছেন কপিল-আজাদরা? রহস্য কী? তা নিয়ে কয়েক কিস্তি ধারাবাহিকভাবে বিশ্লেষণ করবেন সেখ ইবাদুল ইসলাম । আজ দ্বিতীয় কিস্তি। সেখ ইবাদুল ইসলাম : আরএসএস মুক্ত ভারত গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন জওহরলাল নেহেরু । তিনি বুঝতে পেরেছিলেন মহাত্মা গান্ধীর মতো সহনশীল হিন্দুত্ববাদীরাও এদের কাছে নিরাপদ ছিলেন না । সুভাষচন্দ্র বসুও বিরোধী ছিলেন । তিনি চেয়েছিলেন কংগ্রেস দলকে সম্পূর্ণভাবে ধর্মনিরপেক্ষ করে তুলতে ।…

আরও পড়ুন