কলকাতা 

রাজ্য সরকারের বঞ্চনার প্রতিবাদে আন-এডেড মাদ্রাসাগুলি তীব্র আন্দোলনের পথে, ৫ নভেম্বর কোচবিহার থেকে শুরু হবে আন্দোলন

শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : পুজোর পরেই আবার রাস্তায় নেমে আন্দোলনমুখী হতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গের আন-এডেড মাদ্রাসা শিক্ষক ও পরিচালকরা । তাঁদের দাবি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা একটাও পালন করেননি । বরং কেন্দ্রের বিজেপি সরকার আন –এডেড মাদ্রাসার শিক্ষকদের আর্থিক সাহায্য করার উদ্যোগ নিলেও রাজ্য সরকারের গাফিলতিতে সেই উদ্যোগ কার্যকরী হয়নি। এরফলে কয়েকশো শিক্ষক বেতন-ভাতা থেকে বঞ্চিত হয়েছে বলে আন-এডেড মাদ্রাসার আন্দোলনের নেতা আবদুল ওয়াহাব বাংলার জনরব জানিয়েছেন । তিনি বলেছেন, কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে আন এডেড মাদ্রাসার তিনজন শিক্ষকের বেতন সরাসরি ওই শিক্ষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে । সেই মতো নাকি রাজ্য সরকার তালিকাও পাঠায়। কিন্ত বিস্ময়ের বিষয় কেন্দ্রের ডাকা এই সংক্রান্ত বৈঠকে রাজ্যের কোনো প্রতিনিধি ছিল না । ফলে রাজ্যের স্বীকৃত আন-এডেড মাদ্রাসাগুলির শিক্ষকরা বেতন-ভাতা থেকে বঞ্চিত হয়েছে । এছাড়া মমতা সরকার আন –এডেড মাদ্রাসাগুলি স্বীকৃতি দেওয়ার সময় বলেছিল আর্থিক অনুদান ছাড়া সরকারী প্রকল্পের সব রকম সুযোগ-সুবিধা আন-এডেড মাদ্রাসগুলিকে দেওয়া হবে ।

আবদুল ওয়াহাবের অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী এবং তাঁর পরিচালিত সংখ্যালঘু দপ্তর তাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি মতো একটা কাজও করেনি। বরং আন-এডেড মাদ্রাসাগুলির প্রতি বঞ্চনা আরও তীব্র হয়েছে । মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও আমাদেরকে নানা প্রতিশ্রুতি দিলে তা কার্যকরী করা হয়নি বলে আবদুল ওয়াহাব অভিযোগ করেন। তিনি বলেন আমাদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে । তাই এবার আন্দোলন আমাদের কাছে একমাত্র পথ । আগামী ৫ নভেম্বর কোচবিহার জেলাশাসকের অফিসের সামনে ধর্না বিক্ষোভ কর্মসূচির মাধ্যমে রাজ্য জুড়ে আন্দোলন শুরু হবে । পরবর্তীকালে কলকাতায় বৃহত্তর আন্দোলনে ডাক দেওয়া হবে । তিনি তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে যাবতীয় ক্ষোভ উগরে দেন ।


শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment