দেশ 

প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প বাস্তবায়নের চেয়ে প্রচারে খরচ হয়েছে বেশি ; এ যেন খাজনার চেয়ে বাজনা বেশি

শেয়ার করুন
  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কথায় বলে খাজনার চেয়ে বাজনা বেশি । আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও প্রকল্প চালু করেন ২০১৫ সালের ২২ জানুয়ারি। এই প্রকল্পটি নিয়ে তিনি বিশ্ব প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন । প্রায় প্রতিটি সভাতেই নিয়ম করে বলছেন এটা তাঁর ইউনিক প্রকল্প । অবশ্য এই প্রকল্প চালু করার ক্ষেত্রে  মূলত তিনটি উদ্দেশ্য ছিল। প্রথমত কন্যা সন্তান সম্পর্কে সমাজের মানসিকতার বদল এবং কন্যা সন্তান ও পুত্র সন্তানের অনুপাতের পার্থক্য কমিয়ে আনা। আর কন্যা সন্তানদের যাতে পরিবারের মধ্যে সম-মর্যাদা তার ব্যবস্থা করা ।

এই নিয়ে জোর কদমে দেশজুড়ে প্রচার চলছে । শাসক দল বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে এই প্রকল্পে ফলে দেশে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসছে । কিন্ত চার বছর কেন্দ্র সরকার সংসদে যে রিপোর্ট পেশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে খাজনার চেয়ে বাজনা হয়েছে বেশি । এই প্রকল্পের প্রচারের অধিকাংশ টাকা ব্যয় করা হয়েছে । বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও প্রকল্পে যে টাকা ২০১৪-১৫ থেকে ২০১৮-১৯ সালের মধ্যে বরাদ্দ হয়েছে তার ৫৬ শতাংশ টাকা প্রচারের কাজে লেগেছে।

এছাড়া ১৯ শতাংশ টাকা খরচ করা হয়নি। এছাড়া ২৫ শতাংশের কম টাকা জেলাগুলিতে পৌঁছেছে। এমনটাই লোকসভায়  সরকারের পক্ষ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে ।

এই তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে ,এখনও পর্যন্ত এই প্রকল্পে সরকার ৬৪৪ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। তার মধ্যে ১৫৯ কোটি টাকা জেলা বা রাজ্যে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৭০.৬৩ কোটি টাকা পাঠানো হয়েছে ২০১৮-১৯ সালে। প্রচারের উদ্দেশ্যেও সবচেয়ে বেশি ১৫৫.৭১ কোটি টাকা খরচ হয়েছে ২০১৮-১৯ সালেই।

 

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment