কলকাতা 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য অভিনয় করে চলেছেন,এনআরসি ইস্যুতে দুমুখো নীতি নিয়ে চলছেন তৃণমূল নেত্রী কটাক্ষ অধীর চৌধুরির

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী লোকসভা নির্বাচনে মহাজোট করার আলোচনা চালাচ্ছেন ,ঠিক তখনই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র ভাষায় আক্রমন করেছেন। শুক্রবার তিনি বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন বহুরূপী, উনি প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসার জন্য লালায়িত হয়ে পড়েছেন। এদিন অধীর চৌধুরি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ট্রোজান হর্সের মতো অভিনয় করছেন এবং একটি ফেডারেল ফ্রন্টের ভাবনা ভাসিয়ে বিরোধী ভোট ভাগ করার চেষ্টা করছেন।” অধীরবাবু আরও বলেন, “ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়াটাই এখন ওনার একমাত্র লক্ষ্য। প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য উনি প্রবলভাবে লালায়িত হয়ে পড়েছেন। ওনার মধ্যে একই সঙ্গে দেবগৌড়া ও গুজরাল উপসর্গ দেখা দিয়েছে।”প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির অভিযোগ, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন স্বৈরচারী শাসক এবং এখন নিজেকে একজন সন্ন্যাসী হিসেবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করছেন। উনি কংগ্রেসকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে উৎখাত করতে চেষ্টা করছেন। আমাদের নেতাদের পিছনে ঠেলে দিচ্ছেন। তিনি মনে করেন যে বাংলায় বিরোধী রাজনীতি করা অপরাধ। পশ্চিমবঙ্গে আমরা অপহরণের রাজনীতির শিকার।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর এক হাত দিয়ে পশ্চিমবঙ্গ থেকে কংগ্রেসকে মুছে ফেলতে চাইছেন এবং আরেক হাত দিয়ে আগামী লোকসভা নির্বাচনের জন্য কংগ্রেসের কাছে সমর্থন চাইছেন।”

তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বিচারিতার আর একটি উদাহরণ হল । তিনি কয়েকদিন আগে এনআরসি-র তালিকা থেকে চল্লিশ লক্ষ লোকের নাম বাদ পড়ার পর বলেছিলেন তালিকা থেকে যারা বাদ পড়েছেন তাদের সকলকে এই রাজ্যে ঠাই দেওয়া হবে। অথচ এখন দেখা যাচ্ছে, যাতে অসম থেকে কেউ এই বাংলায় না আসতে পারে তার জন্য বাংলা-অসম সীমান্তে কড়া পাহারার বন্দোবস্ত করেছেন। এ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুমুখো নীতি স্পষ্ট হয়েছে। এনআরসি-র ইস্যু নিয়ে বলতে গিয়ে অধীর চৌধুরি আবার মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমন করে বলেন,সংসদের সদস্য হিসেবে এই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০০৫ সালে বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অনুপ্রবেশ নিয়ে সংসদে সরব হয়েছিলেন। আর এখন তিনি এর বিরোধিতা করছেন। তাই মুখ্যমন্ত্রীকে অবস্থান স্পষ্ট করার দাবি জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment