কলকাতা 

ববি হাকিম তো অসমের মন্ত্রী নন, উনি কি রাষ্ট্রসংঘের প্রতিনিধি ? কে ডেকেছে উনাকে অসমে ? কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : “আমরা ভিডিয়োতে দেখলাম মহিলা সাংসদরাই পুলিশকে নিগ্রহ করেছেন। পুলিশ হাতজোড় করেছে ওনাদের কাছে। ওনারা তখন দৌড়াদৌড়ি করেছেন। আসলে যে নাটক করতে ওরা গিয়েছিল সেটা ফ্লপ হয়ে গেছে। এই ধরনের রাজনীতি বন্ধ হওয়া উচিত। বাংলার মানুষ এবার যোগ্য জবাব দেবে।” শুক্রবার অসম নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ একথা বলেন। তিনি আরও বলেন,বলেন, “ববি হাকিম তো অসমের মন্ত্রী নন, উনি এমন ভাব করছেন যেন রাষ্ট্রসংঘের প্রতিনিধি। কে ডেকেছে উনাকে অসমে যেতে। আসলে উনার নেত্রী যেসব মন্তব্য করেছেন তার পর কি কোনও দায়িত্বপূর্ণ সরকার এদের ঢুকতে দেবে? উনাদের সেই কারণে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। যা করার ওরা বাংলায় করুক না। এখানে তো আর ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই।”
দিলীপবাবু বলেন, “ওরা বলছেন ফোন নাকি কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। আবার দেখছি সেই ফোনেই বাইট দিয়েছেন। ওনারা গেছেন দেখে অসম তৃণমূলের লোকজন পদত্যাগ করেছে। কারণ হিসেবে ওনারা বলেছেন, এরা গন্ডগোল পাকিয়ে চলে যাবে আর আমাদের মার খেতে হবে। অসমের পরিস্থিতি না জেনেই তৃণমূল রাজনীতি করছে। এখন অসমে তৃণমূলের দরজা খোলার লোক নেই। আগেই ত্রিপুরাতে উঠে গেছে। তৃণমূলের জনবিরোধী রাজনীতির যোগ্য জবাব অসমের মানুষ দিয়েছে।”
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসম না গেলেও  তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে অসম পুলিশ। এবিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে উত্তরে দিলীপ ঘোষ বলেন, “যাওয়ার দরকার হয় না। দিলীপ ঘোষ কলকাতায় রয়েছে অথচ আলিপুরদুয়ারে অভিযোগ দায়ের হয়। মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এই ধরনের রাজনীতি ওদের কাছ থেকেই শিখেছি। এতদিন যেটা দিয়েছ এবার সেটা খেতে হবে।”

 


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment