জেলা 

বড়মার অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া নিয়ে পরিবারিক দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে ; পরবর্তী মতুয়া প্রধান কে সেই প্রশ্নেরসমাধান এখনও হয়নি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বড়মার মৃত্যুর পর কে হবেন মতুয়াদের প্রধান ? তা নিয়ে শুরু হয়েছে পরিবারের মধ্যে অশান্তি যার জেরে তা আটকে রইল বড়মার অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া৷ ঠাকুরবাড়িতে আজ বুধবার সকাল থেকে চলে দফায় দফায় বৈঠক৷

মঙ্গলবার এসএসকেএম হাসপাতালে প্রয়াত হন মতুয়া প্রধান বীনাপাণি দেবী৷ আজ তাকে এস এস কে এম হাসপাতাল থেকে সরাসরি নিয়ে যাওয়া হয় ঠাকুরনগরের বাড়িতে৷ সেখানেই রাখা রয়েছে বড়মার মৃতদেহ৷ জীবিত থাকাকালীন বার বার মুখোমুখি হতে হয়েছে পারিবারিক দ্বন্ধের৷ মৃত্যুর পরও সেই অশান্তি থেকে রেহাই পাচ্ছেন না বড়মা৷ পরবর্তী মতুয়া প্রধান কে হবেন তা নিয়ে শুরু হয়েছে প্রকাশ্য দ্বন্ধ৷ ঠাকুর বাড়িতে সকাল থেকে শুরু হইয় বৈঠক। কিন্তু বারবার বৈঠক নিষ্ফলা হওয়াতে দফায় দফায় হয় সেই বৈঠক৷

আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার সময় তাঁর অন্ত্যেষ্টি হবে৷ মতুয়া সঙ্গের লক্ষ লক্ষ ভক্ত রয়েছে৷ শুধু এ রাজ্য নয় ভিন রাজ্যেও মতুয়া ভক্ত রয়েছে৷ মৃত্যুর খবর জানার পরই দূর দূরান্ত থেকে ভক্তরা বড়মাকে শ্রদ্ধা জানাতে আসছেন৷ ভক্তরা শেষ বারের মত বড়মাকে দর্শন করতে চায়৷ তাঁদের সে সুযোগ দেওয়া হোক৷

অন্যদিকে খাদ্যমন্ত্রী তথা উত্তর ২৪ পরগনার তৃণমূল পর্যবেক্ষক জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বক্তব্য, শরীরে পচন ধরেছে। তাই আজই বড়মার অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া সম্পন্ন করা দরকার৷ মৃত্যুর পর মঙ্গলবারই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায়, গান স্যালুটে বিদায় জানানো হবে বড়মাকে। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর শোকবার্তা জানিয়ে টুইটারে লেখেন, বড়মা বীণাপাণি ঠাকুরের প্রয়াণে আমরা শোকস্তব্ধ। এই শোকের মুহূর্তে, ওনার পরিবার এবং মতুয়া সম্প্রদায়ের ভাই ও বোনেদের জানাই আমার সমবেদনা৷ঠাকুর পরিবার সূত্রে খবর, স্বামী প্রমথরঞ্জন ঠাকুরের সমাধির কাছেই বীণাপাণি দেবীর অন্ত্যেষ্টি হবে৷ পরিবারের একমাত্র জীবিত সন্তান মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর৷ নিয়ম অনুযায়ী তিনিই মুখাগ্নি করবেন৷

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment