জেলা 

মজুত করা বোমা ফেটে বিস্ফোরণ আতঙ্ক ছড়ালো রেজিনগরে

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : মঙ্গলবার বিকেলে মুর্শিদাবাদ এর রেজিনগর থানা এলাকার নাজিরপুরে এক কাঠকলের পেছনে হঠাৎই বিস্ফোরণ হয়। সেই বিস্ফোরণের ঘটনা তলিয়ে দেখতে গিয়ে জানা যায় বোমা ফাটার জন্যই এই বিস্ফোরণ।যদিও বিস্ফোরণের জেরে হতাহতের কোনও খবর অবশ্য নেই। তবে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছে পুলিশ। বুধবার ঘটনাস্থল সরজমিনে খতিয়ে দেখতে যান তদন্তকারীরা। আরও বোমা মজুত রয়েছে কি না, খুঁজে দেখতে কাজে লাগানো হয়েছে বম্ব স্কোয়াডকে।

ভোটের দোরগোড়ায় এই বিস্ফোরণ ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। তৃণমূলের অভিযোগ, লোকসভা নির্বাচনের সময় সন্ত্রাস করতেই বোমা মজুত করেছিল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। পাল্টা কংগ্রেস জানিয়েছে, ‘তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী’ এলাকার ভোটারদের ভয় দেখাতেই বিস্ফোরক মজুত করে রেখেছে যত্রতত্র। তারা রেজিনগরের বিধায়ককে কাঠগড়ায় তুলেছে। রেজিনগর ব্লক কংগ্রেস সভাপতি মিন্টু সিংহের অভিযোগ, ‘‘কাঠকলের পিছনে রেজিনগর বিধানসভার বিধায়কের লোকজন বোমা রেখেছিল। সেই বোমাই রোদের তাপে ফেটে গিয়েছে।’’ তবে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের সাংগঠনিক চেয়ারম্যান নিয়ামত শেখের অভিযোগ, ‘‘ভোটের আগে এলাকার সন্ত্রস্ত করতে এবং আইনশৃঙ্খলা প্রভাবিত করতে বোমা মজুত করছে কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।’’

Advertisement

তদন্তে নেমে জেলা পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উদ্ধার হচ্ছে বিভিন্ন রকমের বোমা। অতিরিক্ত তাপমাত্রার জন্য ‘মজুত’ করা বোমা ফাটছে। রেজিনগরের ঘটনাও তেমনই একটা বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে।

সম্প্রতি মুর্শিদাবাদের সাগরপাড়া থানার চক্ররামপ্রসাদ এলাকা থেকে ব্যাগভর্তি তাজা সকেট বোমা উদ্ধার হয়েছে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ সোমবার তল্লাশি চালিয়ে একটি ফাঁকা মাঠ থেকে ওই বিস্ফোরকগুলো উদ্ধার করে।

 

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ