দেশ 

VHP : দুই থেকে তিন সন্তানের জন্মদিন, না হলে হিন্দুরা সংকটে পড়বে, হিন্দু যুবকদের কাছে আহ্বান জানালেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক: এবার আর মুসলিম সমাজকে হুমকি নয় নিজের সমাজকেই নতুন করে সবক শেখালেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা মিলিন্দ পারণ্ডে হিন্দু যুব সম্প্রদায়ের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন একটা সন্তান নয় এবার কম করে দুটি কিংবা তিনটি সন্তানের জন্ম দিতে হবে। না বলে আগামী দিনে হিন্দুরা সংকটে পড়বে বলে ওই বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা মনে করেন। তাই হিন্দু যুবকদের কাছে তার পরামর্শ একটা নয় কম করে দুই থেকে তিনটি সন্তান নিতে হবে নইলে হিন্দু দের অস্তিত্ব বিপন্ন এর মধ্যে পড়বে।

সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের (Madhyapradesh) খাণ্ডওয়াতে একটি যুব সম্মেলনের আয়োজন করে ভিএইচপি ও বজরং দল(Bajrang Dal)। সেখানেই উপস্থিত যুবকদের উদ্দেশে মিলিন্দ পারান্ডে বলেন, “বিয়ের পর প্রত্যেক হিন্দু যুবকের সন্তান জন্ম নিয়ে ভাবা উচিত। প্রত্যেকের কম করে দুই থেকে তিনটি সন্তানের পিতা হওয়া উচিত। হিন্দু সমাজ সংকটে পড়বে যদি হিন্দু জনসংখ্যা কমে যায়।”

এদিনের সভায় ইংরেজি ধারার আধুনিক শিক্ষার বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন ভিএইচপি নেতা। তাঁর মতে, ব্রিটিশ শাসনকালে ভারতের অতীত গৌরবকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। তারা এমন শিক্ষা পদ্ধতি প্রণয়ন করেছিল যাতে করে নিজেদের অতীত ইতিহাস সম্পর্কে আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলে হিন্দু সমাজ।

মিলিন্দ বলেন, “তারা আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাকে কলুষিত করেছে… যে সমাজ তার পূর্বপুরুষদের জন্য লজ্জিত বোধ করে সেই সমাজ বেশিদিন টিকে থাকতে পারে না।”

মিলিন্দ আরও বলেন, যখন মুসলিমদের সংখ্যা বাড়ছে, তখন হিন্দুদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। যা বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে হিন্দুদের জন্য। হিন্দুদের অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ভিএইচপি নেতা। নেতার বক্তব্য, “হিন্দু জনসংখ্যা কমলে দেশের অখণ্ডতা বিপন্ন হতে পারে। অতীতেও এমনটা দেখা গিয়েছে। দেশ যাতে আবার ভাগ না হয় সেজন্য হিন্দুদের সংখ্যা বাড়ানো উচিত। ”

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ