আন্তর্জাতিক 

নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির আসনে ভারত

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক: আগামী কাল দোসরা আগষ্ট সোমবার থেকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক হতে চলেছে। এবার নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির আসন পেয়েছে ভারত। যদিও ভারত নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য। এর আগে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে ছিল ফ্রান্স। পরিষদের একটি বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। স্বাধীন হওয়ার পর এই প্রথম ভারতের কোন প্রধানমন্ত্রী নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন।রাষ্ট্রসংঘে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রদূত সৈয়দ আকবরুদ্দিন রবিবার একথা জানিয়েছেন।

ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রসংঘে  ভারতের রাষ্ট্রদূত টিএস তিরুমূর্তি জানিয়েছেন, ভারতকে ফ্রান্স যেভাবে সমর্থন জানিয়েছে সেজন্য ভারতের তরফে ফ্রান্সকে ধন্যবাদ জানানো হচ্ছে। এদিকে এই এক মাস ভারতের মুখ্য অ্যাজেন্ডা কী হতে চলেছে তা নিয়েও জল্পনা শুরু হয়েছে।

শুক্রবারই অবশ্য ভারতের তরফে সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার পরই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সমুদ্রপথে সুরক্ষা, শান্তি বজায় রাখা, সন্ত্রাসবাদ বিরোধিতার মতো ইস্যুতে সরব হবে ভারত। ন‌িরাপত্তা পরিষদ থেকে ভিডিও বার্তায় তিরুমূর্তি জানিয়েছেন, ‘‘আগস্টে ভারতের সভাপতিত্বের সময়কালে তিনটি উচ্চস্তরের বৈঠকের আয়োজন করা হবে। সেগুলি হবে সমুদ্রপথে সুরক্ষা, শান্তি বজায় রাখা, সন্ত্রাসবাদ বিরোধিতা বিষয়ক।’’

পাশাপাশি তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, সিরিয়া, ইরাক, সোমালিয়া, ইয়েমেন ও মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য দেশগুলির প্রতিনিধিদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বৈঠকের পরিকল্পনাও রয়েছে ভারতের। তিরুমূর্তির কথায়, ‘‘আমি আত্মবিশ্বাসী সভাপতি থাকাকালীন আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তাকে শক্তিশালী করার বিষয়ে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ করবে ভারত।’’

ভারতের সভাপতিত্ব সম্পর্কে উচ্ছ্বসিত ফ্রান্স। ভারতে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত এমানুয়েল লেনাইন জানিয়েছেন ফ্রান্সের হাত থেকে এই দায়িত্ব ভারত নেওয়ায় তাঁরা আনন্দিত। বিভিন্ন বিষয়ে ভারতের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে ফ্রান্স আগ্রহী বলে জানিয়েছেন তিনি।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ