কলকাতা 

’ আমরা কোনও হিংসাত্মক প্রতিবাদে বিশ্বাস করি না। তবে সিএএ আর এনআরসি-র প্রতিবাদ করব জান-প্রাণ দিয়ে।’: সিদ্দিকুল্লাহ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রবিবার সকাল সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে পথে নামল জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের কর্মীরা । সকাল থেকে সিএএ আইন প্রত্যাহার করতে হবে এই শ্লোগান তুলে হাজার হাজার মানুষ কলকাতার ধর্মতলার রানী রাসমনি রোডে জমায়েতে অংশ নেন । এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের রাজ্য সভাপতি জনাব মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি বলেন , সিএএ আর এনআরসি দুটো করেই বিজেপি বা মোদী সরকার তার দাফনের ব্যবস্থা করে ফেলেছে । দেশজুড়ে প্রতিবাদ চলছে । সিএএ আইন প্রত্যাহারের দাবিতে যে বিক্ষোভ আন্দোলন দেশে শুরু হয়েছে তাতে শুধু মুসলমানরা নয় , অমুসলিমরা কাতারে কাতারে সামিল হচ্ছে । ফলে মোদী সরকার এখন মুখ বাঁচানোর জায়গা খুঁজে পাচ্ছে না । স্বাধীনতা আন্দোলনে জমিয়ত অংশ নিয়েছিল , তাদের খুনে রাঙা হয়েছে দেশের মাটি । দেশের জন্য জমিয়ত কর্মীদের এই বলিদান এখনও শেষ হয়নি ।

সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি বলেন ,সিএএ আইন মানবতা বিরোধী, নাগরিক বিরোধী। যারা দীর্ঘদিন ধরে এখানে বসবাস করছেন, এই আইন তাদের বিরোধী। তাই এই আইন প্রত্যাহার না করলে অমিত শাহ কলকাতায় এলে তাঁকে বিমানবন্দর থেকে বেরোতে দেওয়া হবে না ।

তাঁর কথায় , ‘যদি কখনও অমিত শাহ আসে, তাহলে তাঁকে এয়ারপোর্ট থেকে বেরতে দেব না। এক লক্ষ লোক নিয়ে সেখানে চলে যাব আমরা।’ তিনি আরও বলেন,’ আমরা কোনও হিংসাত্মক প্রতিবাদে বিশ্বাস করি না। তবে সিএএ আর এনআরসি-র প্রতিবাদ করব জান-প্রাণ দিয়ে।’

সিদ্দিকুল্লার দাবি, বিজেপির গ্রহণযোগ্যতা ইতিমধ্যেই মানুষের কাছে কমেছে। উদাহরণ হিসেবে কলকাতা সহ গোটা দেশ জুড়ে যে বিক্ষোভ চলছে, সেকথা উল্লেখ করেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন, ‘মোদীর ৫৬ ইঞ্চির ছাতি দেশের মানুষকে ছোট করেছে। উনি ঘৃণা আর বিভেদের রাজনীতি করছেন।’  এদিনের প্রতিবাদ সভায় কয়েক লক্ষ মানুষের সমাগম হয়েছিল বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment