কলকাতা 

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করার অভিযোগ যাদবপুরের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিয়ের করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করেছে , অথচ বিয়ে করছেন না যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনেছেন এক মহিলা । ওই  মহিলা এই অভিযোগ করেছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসের কাছে। এই অধ্যাপক যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক শিক্ষক ।

এর আগে বুধবার ফেসবুকে আর এক মহিলা অভিযোগ করেন, ওই শিক্ষক তাঁর এক আত্মীয়াকে অত্যন্ত অশালীন প্রস্তাব দিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে উপাচার্য সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী যা করার করা হবে। বিযয়টি ইন্টারনাল কমপ্লেন্টস কমিটিতে (আইসিসি) পাঠিয়েছি।’’

ঘটনার সূত্রপাত বুধবার। ওই রাতে এক মহিলা কিছু স্ক্রিনশট-সহ ফেসবুকে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ পোস্ট করেন। মহিলার বক্তব্য, তাঁর এক আত্মীয়াকে ফেসবুক মেসেঞ্জারে কুকথা বলেছেন অভিযুক্ত শিক্ষক। সেখানেই আরও কয়েক জন সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ করেন।

ফেসবুকে করা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ওই শিক্ষকের বক্তব্য, মাস দেড়-দুই আগে তিনি গ্যারাজে গাড়ি রাখার সময়ে তাঁর মোবাইলটি বাইরে পড়ে যায়। পরের দিন তিনি ফোনটি খুঁজে পান। মাঝের ওই সময়ে কেউ তাঁর ফোন নিয়ে কিছু করেছিল কি না, তিনি বুঝতে পারছেন না। বিষয়টি নিয়ে হরিদেবপুর থানায় জেনারেল ডায়েরি করেছেন তিনি। অন্য দিকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ অস্বীকার করে ওই শিক্ষক বলেন, ‘‘মহিলার কথা সত্যি নয়। ওঁর মানসিক সমস্যা রয়েছে।’’ এই বিষয়ে অভিযোগকারিণী বলেন, ‘‘আমার কাছে সব প্রমাণ রয়েছে। মানসিক রোগী বলে আমায় ঠেকিয়ে রাখা যাবে না।’’


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment