জেলা 

ফুরফুরা ইউনিক ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্টের সামাজিক অনুষ্ঠানে চাঁদের হাট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রবিবার ফুরফুরা ইউনিক ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবির , চক্ষু পরীক্ষা শিবির ,গরীব দুঃস্থদের বস্ত্রদান , প্রতিবন্ধীদের সরঞ্জাম এবং এলাকার মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান হয় হুগলী জেলার ফুরফুরায় । এদিনের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চলচিত্র নির্মাতা রাজ ব্যানার্জি , বাচিক শিল্পী সর্বানী চ্যাটার্জি , বিশিষ্ট লেখক ও সাংবাদিক মুহাম্মদ সাদউদ্দিন , সমাজসেবী তপন শিকদার ,চলচিত্র ব্যক্তিত্ব স্বপন সিংহ , অভিজিৎ দাস ,আবু আফজল জিন্নাহ প্রমুখ । এদিনের অনুষ্ঠানের সূচনায় ফুরফুরা ইউনিক ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের কর্ণধার মুফতি গোলাম হাবিব সংস্থার বিভিন্ন কাজকর্মের বিবরণ দেন ।

প্রধান অতিথির ভাষণে চলচিত্র পরিচালক রাজ ব্যানার্জি বলেন , হাবিবভাই কাজে আমরা মুগ্ধ । বর্তমান সময়ে রাজ্যের প্রতিটি পাড়ায় পাড়ায় একটা করে হাবিবভাই  প্রয়োজন আছে । হাবিবভাইরা আসল দেশসেবা করছেন । তাই হাবিবভাইয়ের পাশে দাঁড়ানো আমাদের সকলের দায়িত্ব । সেই দায়িত্ব এবং কর্তব্য থেকেই আমরা এখানে এসেছি ।

শিক্ষক ও সাংবাদিক সেখ ইবাদুল ইসলাম ফুরফুরা ইউনিক ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্টের কাজকর্মে ভূয়শী প্রশংসা করে বলেন ,মানতবার সেবা করা সবচেয়ে বড় ধর্ম । সেই কাজটিই করে যাচ্ছেন হাবিবভাই । এটা ইসলামের একটা অংগ । এভাবে আমরা যদি সেবা করার মানসিকতা নিয়ে কাজ শুরু করি তাহলে সম্প্রীতির ক্ষেত্রে তা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে ।

লেখক ও সাংবাদিক মুহাম্মদ সাদউদ্দিন বলেন , একজন মুসলিম ধর্মগুরুকে আমি জিজ্ঞাসা করেছিলাম কোনো হিন্দুকে আপনি কী মনে করেন ? তিনি বলেন , একজন মানুষ হিসেবে তাঁকে আমরা আশরাফুল মুখলুকাত বা সৃষ্টির সেরা জীব বলে মনে করি । একজন হিন্দু সন্ন্যাসীকে প্রশ্ন করেছিলাম একজন মুসলমানকে আপনি কোন চোখে দেখেন ? তিনি উত্তর দিয়েছিলেন নরনারায়ণ হিসেবে দেখি । অর্থাৎ সবাই আমরা সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করি । কিন্ত এক শ্রেণির মানুষ সম্প্রীতির বিরোধী । তারা রাজনীতির স্বার্থে ধর্মকে ব্যবহার করে চলেছে ।

বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী সর্বানী চ্যাটার্জি মুফতি গোলাম হাবিবের কাজের ভূয়শী প্রশংসা করে তার পাশে সকলকে দাঁড়ানোর আবেদন করেন । এদিন সর্বানীর বিদ্রোহী কবি নজরুল ইসলামের কামাল পাশা কবিতাটি আবৃত্তি করেন । যা সকল শ্রোতাকে আকৃষ্ট করে । সর্বানী চ্যাটার্জির আবৃত্তির মধ্য দিয়েই সভার কাজ শেষ হয় । এদিন একটি পাখিকে খাঁচা মুক্ত করে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় । এদিন প্রায় দুশো গরীব মানুষকে বস্ত্রদান করা হয়, কয়েক শো চক্ষুরোগীর চোখ বিনামূল্যে পরীক্ষা করা হয় ।

এদিন রাজ ব্যানার্জি , সর্বানী চ্যাটার্জি , তপন শিকদার স্বপন সিংহ , ইবাদুল ইসলাম ও মুহাম্মদ সাদউদ্দিন ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আমের সিদ্দিকী , কুতুবউদ্দিন সিদ্দিকী , সিবগাতুল্লাহ সিদ্দিকী, মেহেরাব সিদ্দিকী ও আব্বাস সিদ্দিকীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ।

সমগ্ৰ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শ্রী জগৎজ্যোতি মন্ডল ও সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা মুফতি গোলাম হাবিব।

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment