জেলা 

বাড়ির কাজ না করে সারাদিন মোবাইল ঘাটাঘাটি বাবার তিরস্কারের পাল্টা চলল গুলি!

শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিনিধি : সারাদিন ধরে শুধু মোবাইল দেখে আর কোন কাজ করে না। বাড়িতে অভাব বাবা পরিশ্রম করেন কোন রকমের সংসার চলে। শুধু বাবাই নয় বাড়ির অন্যান্য সদস্যরাও অন্যান্য কাজের সঙ্গে যুক্ত কিন্তু ছোট ছেলেটি এসব কাজ করে না। সে সারাদিন ধরে শুধু মোবাইল দেখে আর তা নিয়েই মাঝে মাঝেই বচসা বাঁধে বাবার সঙ্গে।

রবিবার সকালে বাবা বাজারে যাওয়ার আগে ছেলেকে বলে বাজারে যেতে ছেলে বলে আমি যাব না মোবাইল দেখব আর তা নিয়েই শুরু হয় বাবার বকুনি, বাবা কথা বলার সঙ্গে সঙ্গেই ছেলে কি করলেন সোজা পিস্তল তুলে দু রাউন্ড গুলি চালালেন বাবাকে লক্ষ্য। এরপরই আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাবাকে ভর্তি করা হয়েছে বহরমপুর মেডিকেল কলেজে। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর থানার সৈদাবাদ জোড়া শিব মন্দির এলাকায়। বাবাকে গুলি চালিয়ে দিয়েই ছেলে নিপাত্তা হয়ে গেছে। পুলিশ তাকে খুঁজে বেড়াচ্ছে।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে খবর, মুর্শিদাবাদের বহরমপুর থানা এলাকার সৈদাবাদ জোড়া শিবমন্দির এলাকার বাসিন্দা সুশান্ত মণ্ডলের ছোট ছেলে সৌমেন তেমন কোনও কাজকর্ম করতেন না। ছেলে কেন সারা ক্ষণ মোবাইল নিয়ে বসে থাকেন, এ নিয়ে তাঁকে বকাবকি করেন বাবা। অভিযোগ, বাবার শাসনে বিরক্ত হয়ে তাঁকে পর পর দুই রাউন্ড গুলি ছোড়েন ছেলে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, একটি গুলি লাগে সুশান্তবাবুর বুকে। বর্তমানে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হলেও স্থিতিশীল বলে খবর। হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে গুলিবিদ্ধ বৃদ্ধ বলেন, ‘‘কষ্ট করে সংসার চালাতে হয়। ছোট ছেলে কোনও কাজ করে না। এর আগেও এক বার ওকে এ নিয়ে বলেছিলাম বলে আমায় মারধর পর্যন্ত করেছিল। তার পরে ভয়ে কিছু বলিনি। কিন্তু রবিবার সকালে বাজার করার কথা নিয়ে কথা কাটাকাটি হতেই আমাকে গুলি করে। ওর সঙ্গে আরও এক জন ছিল। আমি চাই, ওর শাস্তি হোক।’’


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ