জেলা 

তৃণমূলের তিন নেতার গ্রেফতারির দাবিতে ফের সন্দেশখালি উত্তাল

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রবিবার সকাল থেকে আবার সন্দেশখালিতে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। এবার তিন তৃণমূল নেতার গ্রেফতারের দাবিতে এই বিক্ষোভ শুরু করেছে স্থানীয় মহিলারা বলে জানা গেছে। এই তিন তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ জমির জবদরদখল থেকে শুরু করে এলাকার মানুষের উপর অত্যাচার এমনকি, মহিলাদের নির্যাতনের অভিযোগও উঠেছে ওই তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে। রবিবার সন্দেশখালির বেড়মজুর গ্রামের বাজার চত্বরে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীদের একাংশ।

সন্দেশখালিতে বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু হয়েছিল গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই। জমির জবরদখল থেকে শুরু করে মহিলাদের নির্যাতন-সহ একাধিক অভিযোগে তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখ এবং তাঁর শাগরেদদের গ্রেফতারির দাবিতে পথে নেমেছিলেন সন্দেশখালির মহিলারা। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি শাহজাহানের গ্রেফতারির পর সেই আন্দোলন কিছুটা থিতিয়েছিল। পরে গ্রেফতার করা হয়েছিল শাহজাহান-ঘনিষ্ঠ, সরবেড়িয়ার গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান জিয়াউদ্দিন মোল্লা, ফারুক আকুঞ্জি এবং দিদার বক্স মোল্লাকেও। শনিবার শাহজাহানের ভাই আলমগির শেখকেও গ্রেফতার হয়েছে সিবিআইয়ের হাতে। এই পরিস্থিতিতেই রবিবার সন্দেশখালির বেরমজুরে নতুন করে শুরু হয় বিক্ষোভ।

Advertisement

যে তৃণমূল নেতাদের গ্রেফতারির দাবিতে সরব হয়েছেন গ্রামবাসীরা, তাঁরা হলেন, বেড়মজুর দুই নম্বরে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান হাজি সিদ্দিক মোল্লা, তৃণমূল নেতা হাশেম মোল্লা এবং জুলফিকার মোল্লা। এঁদের বিরুদ্ধেও জমিদখল এবং মানুষের উপর অত্যাচারের অভিযোগ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার থেকেই বিজেপি নেত্রী তথা আইনজীবী প্রিয়ঙ্কা টিব্রেওয়ালের নেতৃত্বে সন্দেশখালির মানুষের অভিযোগ নেওয়ার শিবির শুরু হয়েছে। শনিবারের পর রবিবারও সন্দেশখালির ত্রিমোহিনী এলাকায় শুরু হয় অভিযোগ গ্রহণ শিবির। প্রিয়ঙ্কা ছাড়াও সেখানে রয়েছে ২০ জন আইনজীবীর প্রতিনিধিদল । এলাকার মানুষের অভিযোগ তাঁরা গ্রহণ করবেন এবং সেই অভিযোগ জমা দেবেন আদালতে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ