দেশ 

“বিজেপি ধর্ম বিরোধী, তাই তাদের সমর্থন নয়” দাবি সাধুদের , ১৫ বছর পরে মধ্যপ্রদেশে ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন দেখছে কংগ্রেস

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  মধ্যপ্রদেশে এবার কি কংগ্রেসই ক্ষমতায় আসছে ? বিজেপি-র ১৫ বছরের শাসনের এবার অবসান হওয়ার সংকেত পাওয়া গেছে । আর এতেই কংগ্রেস নেতাদের চোখে-মুখে ক্ষমতায় ফিরে আসার সংকেত স্পষ্ট হয়েছে । কেন এই প্রত্যাশা ? কেনই বা হঠাৎ করেই তাদের ক্ষমতায় ফেরার সম্ভাবনা  বেড়ে গেল।

সংবাদ সংস্থার খবর মধ্যপ্রদেশের কয়েকশো  সাধুসন্ত জানিয়ে দিয়েছেন, এ বছর আর বিজেপি নয়, কংগ্রেসকেই ভোট দেবেন তাঁরা।শুক্রবার নর্মদার তীরে জড়ো হয়েছিলেন শয়ে শয়ে সাধুসন্ত। ‘নর্মদে সংসদ’ নামক একটি সভাও করেন তাঁরা। সকলেই একযোগে জানিয়ে দিয়েছেন, এ বার তাঁদের সমর্থন থাকবে কংগ্রেসের দিকে। অন্য দিকে, প্রতিশ্রুতি দিয়েও পিছিয়ে আসার জন্য মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা পালন না করার জন্য সাধুরা বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছেন। তারাঁ বলেছেন , এবার বিজেপিকে কোনো ভোট দেওয়া হবে না । সব ভোট কংগ্রেসকে দেওয়া হবে । আর এতেই আশার আলো দেখতে পাচ্ছে রাহুলের সেনাপতিরা।

উল্লেখ্য  মধ্যপ্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া সাম্মানিক মন্ত্রিত্বের পদ ছেড়ে দিয়েছেন কম্পিউটার বাবা। তিনি বলেন, এ বার তাঁদের পুরো সমর্থন থাকবে কংগ্রেসের দিকে। বিজেপির সমর্থক হিসেবে পরিচিত মহামণ্ডলেশ্বর বৈরাগ্যনন্দ গিরিও বলেন, “এ বার আমরা সবাই কংগ্রেসের দিকে।”

“বিজেপি ধর্ম বিরোধী, তাই তাদের সমর্থন নয়,” এই কথা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সরস্বতীনন্দ। জাতপাত এবং ধর্মীয় ভেদাভেদ তৈরি করছে বিজেপি সরকার, এমনই অভিযোগ করেন সাধুসন্তরা।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment