কলকাতা 

মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষা-সহায়কদের প্রতি বেতন বৈষম্যের অভিযোগ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আগের পঞ্চায়েত দফতর বর্তমান স্কুল শিক্ষা দফতর পরিচালিত মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রগুলির শিক্ষা-সহায়কদের বেতনের সঙ্গে মাদ্রাসা শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষা সহায়কদের বেতনের বৈষম্যের অভিযোগ উঠেছে । জানা গেছে , স্কুল দফতর পরিচালিত মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়কদের বেতন কয়েক মাস আগে বাড়ানো হলেও মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়ক বেতন বাড়ানোর বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে ৫ মার্চ। আগামী ১লা এপ্রিল থেকে তা কার্যকর হবে । সেখানে দেখা যাচ্ছে পাশ গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতনের ক্ষেত্রে দুই শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়কদের বেতনের তফাৎ এক হাজার টাকা । মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের পাশ গ্র্যাজুয়েট শিক্ষা-সহায়করা বর্তমানে ১৩০০০ টাকা বেতন পেয়ে থাকে আর সদ্য বৃদ্ধি পাওয়া মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের পাশ গ্র্যাজুয়েট শিক্ষা-সহায়করা ১২০০০ টাকা বেতন পাবেন । উল্লেখ, মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা সহায়কদের তুলনায় বেশি দায়িত্ব পালন করতে হয়। তবু বেতন বৈষম্য ।আর এ নিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়কদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে । তাঁদের বক্তব্য হল ,মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের পাশ গ্র্যাজুয়েটরা যা যা করেন , মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়করা তার চেয়ে বেশি কর্তৃব‍্য পালন করে থাকেন । তা সত্ত্বে কেন প্রতি মাসে এক হাজার টাকা কম পাবেন তাঁরা ? মাসে এক হাজার টাকা কম মানে বছরে ১২০০০ টাকা কম পাবে মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়করা । বিষয়টি সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করার দাবি জানিয়েছেন মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়করা।

৫ মার্চে জারি করা নির্দেশিকায় মাদ্রাসা শিক্ষা দফতর পরিচালিত মাদ্রাসা শিক্ষাকেন্দ্র ও শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষা-সহায়ক ও শিক্ষাকর্মীদের যে বেতন বাড়ানো হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে , মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রের সুপারের বেতন ১০,৪২১ টাকা থেকে বেড়ে ১৪ হাজার টাকা করা হয়েছে । শিক্ষা সহায়কের যাদের অর্নাস ও পোষ্ট গ্র্যাজুয়েট রয়েছে তাদের বেতন ৯৬৭৫ টাকা থেকে বেড়ে ১৩০০০টাকা করা হয়েছে । অন্যদিকে শিক্ষা সহায়কের পাশ গ্র্যাজুয়েটের বেতন ৮৯৩০ টাকা থেকে বেড়ে ১২০০০ টাকা করা হয়েছে । কেরানির বেতন ( মাধ্যমিক ) ৫,৯৫৩ টাকা থেকে বেড়ে ১০০০০ হাজার টাকা করা হয়েছে । পিওনের বেতন ( অষ্টম শ্রেনির পাশ ) ৬৬৫৬ টাকা থেকে ৯০০০ টাকা করা হয়েছে ।

শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের সুপারের( উচ্চ-মাধ্যমিক)বেতন ৬,০৬৪ থেকে ১১০০০ টাকা করা হয়েছে । শিক্ষা সহায়কদের (মাধ্যমিক) বেতন ৫,৯৫৩ টাকা থেকে ১০০০০ টাকা করা হয়েছে । মাদ্রাসা ও শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক ও কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির জন্য মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি আস্থা জ্ঞাপন করেছেন এই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও কর্মীরা । একইসঙ্গে তাঁদের দাবি মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের পাশ গ্র্যাজুয়েট শিক্ষা সহায়ক বেতন পান ১৩০০০ হাজার টাকা , মাদ্রাসার বেলায় ১২ হাজার টাকা কেন ? অবিলম্বে এই বৈষম্যের অবসানের দাবি জানানো হয়েছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment