Featured Video Play Iconজেলা 

বনগাঁতেও মাল্টি সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল হয়েছে । এতো ডেভেলপমেন্ট পৃথিবীতে কেউ করতে পারেনি যা আমরা করেছি ; আপনাদের নাগরিকত্ব কেউ কেড়ে নিতে পারবে না : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : বনগাঁ তে মাল্টি সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল হয়েছে । এতো ডেভেলপমেন্ট পৃথিবীতে কেউ করতে পারেনি যা আমরা করেছি বাংলায় ২০ বছর আগে বালু বলেছিলো মতুয়া ঠাকুর বাড়িতে যেতে তখন থেকে আমার সম্পর্ক মতুয়াদের সঙ্গে . বড়মার স্বাস্হ্য খারাপ হলে আমি দেখতাম , আমার সম্পর্ক আপনাদের সঙ্গে অনেক বছরের . যারা মানুষ মানুষ এর মধ্যে ঘেন্না জন্ম দেয় তাদের সঙ্গে আমি নেই . আমি ইউনিভার্সিটি করেছি , দক্ষিনেশ্বর স্কাইওয়ার্ক বানালাম , কালীঘাট , তারাপীঠ, বক্রেশ্বর দেখে আসুন সব আমরা করেছি কেউ করেনি . যারা উদ্বাস্তুদের নিয়ে মিথ্যে বলে তাদের বলি আমি উদ্বাস্তুদের জন্য নিঃস্বর্ত জমি দলিল করেছিলাম . আমি যাদবপুরের এমপি ছিলাম তখনই ওটা করিয়ে ছিলাম . আমাদের সরকার ৯৪ তা উদ্বাস্তু কলোনী রেগুলাইরিস করেছি , এখন সেন্ট্রালের জমিতে আর প্রাইভেট জমিতে যারা আছেন সেই সব উদ্বাস্তুদের রেগুলারিসে করে দিয়েছি যাতে কেউ সরাতে পারবেনা . ভিটে এর জন্য অনেক এ মিথ্যে বলে , হিন্দু মুসলিম এ দাঙ্গা লাগায়, মানুষ মানুষ এ ভেদাভেদ করিনা . অনেক কুৎসা ছড়ায় . নতুন একটা রাজনৈতিক দল এসেছিলো ।

আমরা নির্বাচনের সময় বলিনা চৌকিদার,আমরা রাত জেগে বুলবুল এর সময় পাহারা দিয়েছি সেন্ট্রাল এক পয়সা ও দেয়নি । আমি আপনাদের কাছে ভোট চাইতে আসিনি . আমি বলতে এসেছি  এনআরসি সিএএ করতে দেব না দেখি বিজেপি-র কত দম . আমরা সবাই নাগরিক আর বলছে তিন জেনারেশন এর নাম চাই . আমি এনপিআর হতে  দি্ইনি রাজ্যে তার এক মাত্র কারণ আমার বুকে পাঠা আছে । বিজেপি বলছেিএনপিআর এ দিতেও পারে নাও দিতে পারে খেলাটা হচ্ছে তখন এ যারা দিল না তারা বাদ , নিলর্জ্জ মতো বলছে
বিজেপি সব বেঁচে দিচ্ছে , এয়ার ইন্ডিয়া , বিএসএনএল , রেল , অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি সব বেসরকারীকরণ করে দিচ্ছে আলু পিয়াজ এর মতো । বাজেট এ বলছে হয় এটা নাও নয় ওটা । আমি বলছি সিএএ নিয়ে ভুল বোঝানো হচ্ছে , সবাই হচ্ছে নাগরিক , ভোট দিয়ে সরকার বানাচ্ছেন , রেশন কার্ড আর  ভোটার তালিকায় নাম থাকে যেন ।

বিজেপি-র কটা গুন্ডা এসে বললে হবে, বিজেপি নেতা বলছে গুলি চালাবে এটা কি হচ্ছে? সেন্ট্রালের তো শান্তি রাখা উচিত , মানে যদি মতুয়া পছন্দ না হয় তাহলে গুলি চালাবে . পড়ুয়াদের মারছে , শাহীনবাগে এ গুলি চালাচ্ছে ওরা কাউকে চায় না । শুধু মিথ্যে বলে আসন জিতে চলে গেলো আর ভোট এর আগে টাকা দিচ্ছে . নির্বাচনের এর আগে দেখলেন বড় মা কে দেখতে চলে এসেছিলো , ওটা ভোট এর ভালোবাসা বড় মা কে ভালোবাসা, কোথায় ছিল ওরা . সিটিজেনশিপ[নাগরিকত্ব]দেবে কি দেবে , প্রথমে একটা ফর্ম এ বলতে হবে নাগরিক নই ,মানে আপনি ছিলেন নাগরিক হয়ে গেলেন বিদেশী পাঁচ বছর এর জন্য , তারপর ওরা ঠিক করবে নাগরিক কিনা ওরা কে এটা বলার জন্য । আমরা থাকতে কেউ নাগরিক দের অধিকারকে কেড়ে নিতে পারবে না । অসম এ কি করেছে দেখেছেন যারা হিন্দু ছিল তাদের ও , আগুন ছড়াচ্ছে । এখন সিপিএম-বিজেপি কংগ্রেস এখন ভাই ভাই হছে । সিপিএম বাংলা জন্য কোনোদিন কিছু করেনি , দিনে করে কংগ্রেস / সিপিএম আর রাত এ করে বিজেপি । এই দল অন্যায় কিছু করেনা ।
বাংলায় সিএএ/এনআরসি হবেনা . আমরা খালি বাংলার জন্য না সারা দেশ এর জন্য । সব চেয়ে বেশি অত্যাচার করছে দলিত আর খ্রীষ্টান দের ওপর ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment