কলকাতা 

সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠ রাজ্যের পড়ুয়াদের বাধ্যতামূলক করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ করে চিঠি পাঠাল বামপন্থী ছাত্র সংগঠন এসএফআই

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রাজ্য সরকার প্রকাশিত পাঠ্য বইয়ে সংবিধানের প্রস্তাবনা লেখা থাকলে তা ছাত্রছাত্রীদের পড়ানো হয় না । এবার তা পড়ানোর দাবি জানাল রাজ্যের বামপন্থী ছাত্র সংগঠন এসএফআই । এসএফআই-র পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে আর্জি জানানো হয়েছে রাজ্যের পড়ুয়াদের ধর্মনিরপেক্ষতা ঐক্যের পাঠ দিতে স্কুল, কলেজে সংবিধানের প্রস্তাবনা অংশটি পড়ানো বাধ্যতামূলক করা হোক । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে এই আবেদন জানিয়েছেন সিপিএমের ছাত্র সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য এর আগে স্কুল, কলেজে সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেরল সরকার দক্ষিণী রাজ্যে বাম সরকারের পথে হাঁটার জন্য এবার মমতা সরকারকেও আর্জি জানাল এসএফআই

গত শুক্রবার এসএফআইয়ের রাজ্য শাখার তরফে তৃণমূল সরকারের কাছে এই চিঠি পৌঁছে গিয়েছে। সেখানেই উল্লেখ, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বহুত্ববাদই হল ভারতের পরম্পরা, ইতিহাস। সরকারি শিক্ষাব্যবস্থা, পাঠক্রমকে হাতিয়ার করে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছড়ানো হচ্ছে সাম্প্রদায়িকতার বিষ। এমন সময়ে কেরল সরকার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমারও আবেদন করছি, পশ্চিমবঙ্গে সরকারি পাঠক্রমে সংবিধানের প্রস্তাবনা প্রচার নিশ্চিত করা হোক।

এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য বলেন, ‘এপ্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে। বর্তমানে একদিকে দেশের মানুষ, অন্যদিকে মোদী সরকার। তাঁকেই প্রমাণ করতে হবে তিনি সিএএএর বিরুদ্ধে। একদিকে দেখা যাচ্ছে মুখে তিনি সিএএএর বিরোধিতা করছেন, অন্যদিকে সংসদে ক্যাবের উপর ভোটাভুটিতে তাঁর দলের বেশ কয়েকজন সংসদ অনুপস্থিত ছিলেন। বিধানসভাতেও সিএএ বিরোধী প্রস্তাবনা পাসের করানোর অনুমতি দেয়নি।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment