আন্তর্জাতিক 

ইয়েমেনে আমেরিকা, ব্রিটেনের হামলার পরেই বদলার হুঁশিয়ারি হুথিদের ! মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  গতকাল শনিবার ইয়েমেনের ইথিদের ৩৬টি ঘাঁটি লক্ষ্য করে ব্রিটেন এবং আমেরিকা একযোগে হামলা চালায় । এতে বেশ খানিকটা ক্ষতিগ্রস্থ ইয়েমেনের সামরিক সংগঠন হুথি । এরপর রবিবার আবার পাল্টা জবাব এলো হুথিদের কাছ থেকে ।হুথিদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আক্রমণ করে তাদের দমিয়ে রাখা যাবে না। বরং এই আক্রমণের উপযুক্ত জবাব দেবে তারা। আক্রমণকারীদের শাস্তি দেবে বলেও জানিয়েছে হুথিরা।ইয়েমেনের ১৩টি জায়গায় ৩৬টি হুথি ঘাঁটি চিহ্নিত করে শনিবার হামলা চালিয়েছে আমেরিকা এবং ব্রিটেন। তাদের যৌথ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, লোহিত সাগর সংলগ্ন এলাকায় আন্তর্জাতিক এবং বাণিজ্যিক যাতায়াতে দীর্ঘ দিন ধরে ব্যাঘাত সৃষ্টি করছে হুথিরা। সেই কারণেই এই হামলা করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, বাহরিন, কানাডা, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস এবং নিউ জ়িল্যান্ডের মতো দেশও এই হামলায় আমেরিকা এবং ব্রিটেনকে সহযোগিতা করেছে।

হুথিদের সামরিক মুখপাত্র রবিবার এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘‘আমাদের ঘাঁটিতে ৪৮টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। তবে এই আক্রমণ গাজ়ায় প্যালেস্টাইনিদের পক্ষ থেকে আমাদের দূরে সরিয়ে দিতে পারবে না। আমরা তাদের সমর্থন করবই।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘এই আক্রমণের শাস্তি হবেই। আমরা চুপ করে বসে থাকব না।’’

Advertisement

এর আগে আমেরিকা এবং ব্রিটেন যৌথ ভাবে বিবৃতি দিয়ে হুথি ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র বর্ষণের কথা জানিয়েছিল। ইয়েমেনের মাটিতে যে সমস্ত গোপন ডেরায় হুথিরা তাদের অস্ত্রশস্ত্র সরবরাহ করে, সেখানে হামলা চালানো হয়েছে বলে তাদের দাবি। যৌথ বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘‘বিশ্ব বাণিজ্যকে ব্যাহত করা, নিষ্পাপ প্রাণ হত্যা করার যে যজ্ঞ হুথিরা শুরু করেছে, তা ছন্নছাড়া করতেই এই হামলা।’’

মনে করা হচ্ছে এই ইস্যুতে যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়তে পারে সমগ্র মধ্যপ্রাচ্যে । এতে বিশ্বজুড়ে প্রভাব সম্ভাবনা রয়েছে । আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেনের ইসরাইল প্রীতির কারণেই এই যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ছে বলে আন্তর্জাতিক মহল মনে করছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ