জেলা 

অপপ্রচার করে বাংলার সম্প্রীতি নষ্ট করা যাবে না,স্বরুপনগরে বললেন নারায়ন -ফারহাদ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইসরাফিল বৈদ্য, বসিরহাট :  উঃ চব্বিশ পরগনা জেলার স্বরুপনগর বিধানসভা এলাকার সাঁড়াপুল নির্মাণ অঞ্চল তৃনমূল কংগ্রেস এর আহ্বানে ওসিয়া হাই মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে মাহে রমজান উপলক্ষে ইফতার মাহফিলে সম্প্রীতির বার্তা রাখে উপস্থিত নেতৃত্ববৃন্দরা।

Advertisement:

আরবি বছরের নবম মাস মাহে রমজান মুসলিম ধর্মপ্রাণ মানুষদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র বলে মনে করা হয়। সারাদিন সিয়াম বা উপবাস করার পর রোজাদার মানুষের কাছে ইফতারি আলাদা মাত্রা যোগ করে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তৃণমূল কংগ্রেস দলের পক্ষ থেকে ইফতার সামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার স্বরূপনগরে ইফতার মাহফিলে অশোকনগর কেন্দ্রের বিধায়ক জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ নারায়ণ গোস্বামী, ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সেঁড়াপুল নির্মাণ অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কমিটিকে। তিনি বলেন মানুষের মধ্যে ঐক্য ভাতৃত্বের মেলবন্ধন গড়ে তুলতে এইধরনের সামাজিক কর্মসূচি পালন করে থাকে তৃণমূল কংগ্রেস। বাংলার মানুষের মধ্যে যতই বিভাজন চক্রান্ত সৃষ্টি করার চেষ্টা করুক বিজেপি,তা কোনভাবেই সম্প্রীতির বন্ধন আলগা করতে পারবে না বলে বিধায়ক দাবি করে।

জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ তথা রাজারহাট নিউটাউন মাঝেরআইট পীরডাঙ্গা দরবার শরীফের পীরজাদা আলহাজ্ব একেএম ফারহাদ বলেন ধর্মীয় ভাবে কাজে লাগিয়ে বিজেপি কোনভাবেই বাংলার শান্তি সম্প্রীতি ঐক্যের বন্ধন নষ্ট করতে পারবে না।। সরুপ নগর এর সেরা ফুল নির্মাণ অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে ইফতার মাহফিলে যেভাবে মানুষের স্বতঃস্ফূর্ততা লক্ষ্য করা গেছে, তাই প্রমাণ করে দেয় বাংলায় বৈচিত্রের মধ্যে মহামিলনের এক জায়গা।

তিনি বলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো পথকে পাথেয় করে এবং সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি, ফিরহাদ হাকিমদের নির্দেশ মত সাধারণ মানুষ অত্যন্ত স্বতঃস্ফূর্তভাবে দলীয় কর্মসূচি পালন করার সাথে সাথে ধর্মীয় অনুষ্ঠান গুলি যথাযোগ্য মর্যাদায় রূপায়ণ করে থাকে।দোয়ার মাহফিল ও ইফতার মাহফিলের ব্যবস্থাপনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আবুল কালাম,ওহাব, দুলাল, মাওঃ জাফর, মাওঃ তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

*সীমান্তবর্তী ব্লক স্বরূপনগরে সারপ্রাইজ ভিজিটে কর্মাধ্যক্ষ একেএম ফারহাদ*

প্রশাসনিক আধিকারিক থেকে জনপ্রতিনিধির কাজের গতি তৎপরতার সঙ্গে কাজ করার বার্তা দেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি অহরহ যেকোন দপ্তর কিংবা হাসপাতাল যে কোন জায়গাতেই পরিদর্শনে গিয়ে কাজের খতিয়ান লক্ষ্য রাখেন।।

সেজন্যই বাম আমলের তুলনায় বর্তমান সরকারের আমলে রাজ্যের কাজের গতি ধারাবাহিকতা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করে। বৃহস্পতিবার একটি ঘটনার সাক্ষী থাকলো উঃ চব্বিশ পরগনা জেলার সীমান্তবর্তী স্বরূপনগর বিএলএলআরও অফিস। দক্ষ প্রশাসক হিসেবে জেলা পরিষদের ভূমির কর্মাধ্যক্ষ ফারহাদের কাজ এর আগেও প্রশংসিত পেয়েছে জনমানসে। ঠিক সেরকমই বৃহস্পতিবার কিছু সময়ের জন্য তিনি স্বরূপনগর ভূমি আধিকারিকরণে হঠাৎ উপস্থিত হয়ে আধিকারিক ও উপভোক্তাদের সঙ্গে আরাপচারিতার মাধ্যমে সুবিধা-অসুবিধার কথা জানার চেষ্টা করেন।

তিনি বলেন বর্তমান সরকারের আমলে যেভাবে সাধারণ মানুষ সমস্ত রকমের পরিষেবা সঠিকভাবে পরিষেবা পাচ্ছে তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জেলার প্রতিটি ভূমি আধিকারিক অত্যন্ত দায়িত্যের সঙ্গে কাজ করছে বলে তিনি জানান। ভূমি অধিকারীক পলাশবালা নেতৃত্বে স্বরূপনগর আধিকারিকরণে উপভোক্তারা ভালো পরিষেবা পাচ্ছে বলে তিনি জানান।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ