আন্তর্জাতিক 

আমেরিকার ড্রোন হামলায় আইএসকে-র প্রধান নয় , মারা গেছে আমেরিকার নিজের লোকই, সত্য সামনে আসতেই চরম অস্বস্তিতে বাইডেন প্রশাসন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ফলাও করে প্রচার করা হয়েছিল আইএসকে সংগঠনের প্রধানকে আমেরিকা ড্রোন হামলা চালিয়ে খতম করেছে । কিন্ত বাস্তব সত্য হলো আমেরিকার ড্রোন হামলায় আমেরিকার নাগরিকই নিহত হয়েছে । এই ঘটনা সামনে আসতেই আমোরিকা জুড়ে হইচই শুরু হয়েছে । বেজায় অস্বস্তিতে পড়েছে বাইডেন প্রশাসন ।

খবরে প্রকাশ ২৬ অগস্ট কাবুল বিমানবন্দর এলাকায় আত্মঘাতী হামলা চালায় আইএস-কে। মৃত্যু হয় অন্তত ১৭০ জন আফগান নাগরিক এবং আমেরিকার ১০ নাগরিকের। ২৯ অগস্ট এর ‘বদলা’ নেয় আমেরিকা। পেন্টাগন জানায়, ভবিষ্যতে এমন হামলা যাতে না হয় তার জন্যই ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

এই হামলার পর দাবি করা হয়েছিল কাবুল বিমানবন্দর এলাকায় আত্মঘাতী হামলা চালানো আইএস-কে সংগঠনের মাথাকে নিকেশ করা হয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর ভিডিয়ো বিশ্লেষণে ধরা পড়েছে, আইএস-কে জঙ্গি তো নয়ই, আমেরিকান ড্রোন সোজা গিয়ে আঘাত হেনেছে তাদের নিজেদের লোকেরই উপর! ঘটনায় বিড়ম্বনায় পড়ে গিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

আমেরিকার আফগানিস্তান ছাড়ার সেই লগ্নে বাইডেন প্রশাসনের ‘ফাইনাল অ্যাসল্ট’ নিয়ে মাতামাতি কম হয়নি। কিন্তু সপ্তাহ ঘুরতেই জানা যাচ্ছে, আইএস-কে-র যে মাথাকে নিকেশ করার দাবি জানিয়েছিল আমেরিকা, তিনি বহাল তবিয়তে আছেন। উল্টে আমেরিকার ড্রোন হামলায় মৃত্যু হয়েছে আমেরিকারই এক সহযোগী আফগানের।

এই ঘটনার পর আমেরিকার গোয়েন্দা দফতর এবং তার সামরিক সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল । তিনি নিজেকে সুপার পাওয়ার বলে দাবি করলেও আসলে আফগানদের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করতে হয়েছে আমেরিকাকে এই ঘটনা  আরও একবার প্রমাণ হল ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ