কলকাতা 

দল ও জনতার নজর কেড়েছে মমতার ভালোবাসায় যুব তৃনমূলের দায়িত্বে সায়নী ঘোষ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বুলবুল চৌধুরী : কয়েক মাস আগে রাজনীতির ময়দানে আগমন। আকস্মিক আগমন। এক টিভি চ্যানেল শোতে দাঁড়িয়ে দিলীপ ঘোষের অবাঞ্ছিত মন্তব্যের সমালোচনা করেছিলেন। তারপর রাজ্যজুড়ে বিজেপির আইটি সেল  তাকে রীতিমত বিখ্যাত করে তোলে । যদিও তিনি সেলিব্রেটি অভিনেত্রী বাংলার মানুষের মন জয় করেছেন অভিনয়ের মাধ্যমে।

এই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দাগতে থাকেন বিজেপির নেতারা । গেরুয়া শিবির থেকে রীতিমতো বিভিন্ন ভাবে আক্রমণ করতে থাকে সায়নীকে। অসহায় এই অভিনেত্রীর পাশে পুরো টালিগঞ্জ পাড়া দাঁড়িয়ে গেলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষ কমেনি। শেষ পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে দলে নিলেন প্রার্থী করলেন আসানসোলে। তীব্র লড়াই করলেন বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে ।জিততে পারলেন না। কিন্তু আসানসোলের মানুষের মন জয় করে নিলেন। করে নিলেন বাংলার মানুষের মনও।

তার নাম সায়নী ঘোষ। সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন সায়নী ঘোষ রীতিমতো জনপ্রিয়। বাংলার প্রতিটি তৃণমূল কর্মীর হৃদয়ে স্থান নিয়েছে সায়নী ঘোষ স্পষ্ট কথা, স্পষ্ট ভাষায় বলেন কোন রাখঢাক না রেখে। এহেন জনপ্রিয় একজন অভিনেত্রীকে তৃণমূল কংগ্রেসের যুব ফ্রন্ট এর দায়িত্ব দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আজ তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মসমিতির বৈঠকের পরবর্তী যুব তৃণমূল নেত্রী হিসাবে সায়নী ঘোষের নাম ঘোষণা করা হয়। সায়নী ঘোষ আগামী দিনের বাংলার যুব নেত্রী হিসাবে সাফল্য পাবেন তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। কারণ তার মধ্যে নিরপেক্ষ মন রয়েছে ধর্মনিরপেক্ষ আদর্শ রয়েছে বামপন্থী মানসিকতা রয়েছে। ফলে অনেক বামপন্থী নেতাদের চেয়েও তিনি অনেক বেশি সেক্যুলার। তার এই নতুন যাত্রা শুভ হোক এই কামনা আমরা করি।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment