দেশ 

সুপ্রিম কোর্টের রায় মেনে উত্তরপ্রদেশ সরকারের দেওয়া ৫ একর জমিতেই মসজিদ নির্মাণ করবে ওয়াকফ বোর্ড

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে সুপ্রিম কোর্ট উত্তরপ্রদেশ সরকারকে মসজিদ তৈরি জন্য বিকল্প ৫ একর জমি দিতে বলেছিল । কিন্ত সরকারের এই জমি সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড গ্রহণ করবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দেয় । তবে আজ সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড জানিয়ে দিয়েছে তারা বিকল্প জমি গ্রহণ করবে এবং সেখানে মসজিদ নির্মাণ করা হবে । ওয়াকফ বোর্ডের এই ঘোষণায় কার্যত সব জল্পনার অবসান হল ।

সোমবার সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান জুফার ফারুকি বলেন, ‘‘আজকের বৈঠকে ঠিক হয়েছে, উত্তরপ্রদেশ সরকার যে জমি আমাদের জন্য বরাদ্দ করেছে, তা গ্রহণ করা হবে। তার সঙ্গে একটি ইন্দোইসলামিক রিসার্চ সেন্টার, একটি দাতব্য হাসপাতাল এবং একটি লাইব্রেরিও তৈরি হবে ওই জমিতে।’’ তিনি জানিয়েছেন, এর পর মসজিদ তৈরির জন্য একটি ট্রাস্ট গঠন করা হবে। কিন্তু মসজিদের নাম কি বাবরি মসজিদই হবে? এই প্রশ্নের উত্তরে ফারুকি বলেন, ‘‘সেটা ট্রাস্ট সিদ্ধান্ত নেবে। এর সঙ্গে বোর্ডের কিছু করার নেই।’’ স্থানীয় মানুষের চাহিদার উপর ভিত্তি করেই মসজিদ কত বড় হবে, তা ঠিক করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি মসজিদের কাঠামোও বাবরি মসজিদের মতো হবে কি না, সে বিষয়েও কিছু বলতে চাননি ফারুকি। 

তবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের ক্ষোভও গোপন রাখেননি ফারুকি। তিনি বলেন, ‘‘সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছে, তাতে অযোধ্যায় মসজিদ তৈরির জন্য ওই জমি গ্রহণ করা ছাড়া আমাদের হাতে আর কোনও বিকল্প ছিল না। গ্রহণ না করলে আদালত অবমাননার দায়ে পড়তাম আমরা।’’ ওয়াকফ বোর্ডের মোট সদস্য আট জন। তার মধ্যে সোমবারের বৈঠকে ছিলেন জন

গত বছরের নভেম্বরে সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছিল, অযোধ্যার মূল বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির তৈরিতে কোনও বাধা নেই। তবে মসজিদ তৈরির জন্য অযোধ্যাতেই বিকল্প পাঁচ একর জমি দিতে হবে সরকারকে। সেই রায়ের পরেই জমির খোঁজ করতে শুরু করে উত্তরপ্রদেশ সরকার। শেষ পর্যন্ত গত পাঁচ ফেব্রুয়ারি রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর ওই পাঁচ একর জমি বরাদ্দ করা হয় 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment