কলকাতা 

সাধারণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে ক্রিসেন্ট চ্যারিটেবল ট্রাষ্টের উদ্যোগে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা

শেয়ার করুন
  • 93
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : সমগ্র দেশের সঙ্গে কলকাতার ক্রিসেন্ট চ্যারিটেবল ট্রাষ্টও যথাযথযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে প্রজাতন্ত্র দিবস পালন করে । এই উপলক্ষে সংস্থার পক্ষ থেকে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা করা হয় । তিনটি ভাগে এই প্রতিযোগিতা হয় । ‘ ক‘ বিভাগের বিষয় ছিল যেমন খুশি আঁকো , ‘খ‘ বিভাগের বিষয় ছিল প্রকৃতি ও ‘গ‘ বিভাগের বিষয় ছিল পরিবেশ বাঁচাও । তিনটি থিমের ছবি এঁকে যারা প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারীদের পুরস্কার দেওয়া হয় , সঙ্গে শংসাপত্রও ।

এবিষয়ে সংস্থার অন্যতম কর্ণধার শেখ শামশের আলম বলেন ,পিছিয়ে পড়া সমাজের শিশুদের মূলস্রোতের ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে আমাদের এই উদ্যোগ । আমাদের উদ্যোগে বসে আঁকো প্রতিযোগিতায় বস্তির গরীব ছেলেমেয়েদেরকেই সুযোগ দেওয়া হয়েছে । কারণ এদের মধ্যে প্রতিযোগিতার মানসিকতা গড়ে তোলা আমাদের সংস্থার মূল উদ্দেশ্য। সেই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে আমরা এধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছি । একই সঙ্গে সবাইকে সুযোগও দেওয়া হয়েছে । এর ফলে ওই পরিবারগুলির ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা ও সমাজের প্রতি আগ্রহের সৃষ্টি হবে । তিনি আরও বলেন , আমাদের বিষয়গুলির মধ্যেও স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছে , পরিবেশ ও প্রকৃতি সম্পর্কে ।

অন্যদিকে সংস্থার আর এক কর্ণধার জুলেখা বেগম জানান , বসে আঁকো প্রতিযোগিতার জন্য ২৫০ জন ছেলেমেয়ে আবেদন করেছিল । তারা সবাই অংশ নেয় । এর পাশাপাশি সমাজের দুঃস্থ পরিবারের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য বিশেষ সাহায্য আমরা করে থাকি । এছাড়া , বস্তি এলাকা বলে পরিচিত তপশিয়ার ছেলেমেয়েদের শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে আমরা উচ্চ-মাধ্যমিক পর্যন্ত একটি বিদ্যালয় তৈরি করেছি । যার নাম দ্য ক্রিসেন্ট স্কুল। এখানে উচ্চ-মাধ্যমিক পর্যন্ত পড়াশোনা হয় ; অল্প খরচে । এছাড়াও লিন্টন স্ট্রিটে দ্য ক্রিসেন্ট মন্টেসরী স্কুলও তৈরি করা হয়েছে । মূলত গরীব পরিবারের ছেলে মেয়েদের অল্প খরচে আধুনিক শিক্ষার সুযোগ করে দেওয়ার জন্যই আমাদের এই উদ্যোগ বলে জুলেখা সাহেবা জানালেন ।

২৬ জানুয়ারি উপলক্ষে সংস্থার পক্ষ থেকে এক গুরু গম্ভীর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় । এখানে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিরা উপস্থিত ছিলেন । এদিনই বসে আঁকো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের পুরস্কার , উপহার ও শংসাপত্র তুলে দেওয়া হয় ।

 

 


শেয়ার করুন
  • 93
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment