কলকাতা 

রথযাত্রা নিয়ে ডিভিসন বেঞ্চে গেলে মমতা সরকার পক্ষান্তরে বিজেপির-ই সুবিধা করে দেবে : সরদার আমজাদ আলী

শেয়ার করুন
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বুলবুল চৌধুরি : বাম –কংগ্রেসকে রাজনীতি করতে প্রতিনিয়ত বাধা সৃষ্টি করে চলেছে মমতা সরকার । আর উল্টো দিকে বিজেপিকে নানাভাবে প্রাসঙ্গিক করে তুলছে এই সরকার । রথযাত্রা নিয়ে প্রশাসন অনুমতি দিয়ে দিলে এত হইচই হত না । ফলে বিজেপি রাজ্যে কী করতে চলেছে তা রাজ্যের সাধারণ মানুষের পক্ষে বোঝা সম্ভব হত না । কিন্ত তাদের কর্মসূচিকে বাধা প্রদান করে আসলে বিজেপির প্রচারকে তুঙ্গে তুলে দিল তৃণমূল সরকার বলে বৃহস্পতিবার অভিযোগ করেন কংগ্রেস নেতা প্রাক্তন সাংসদ সরদার আমজাদ আলী । রথযাত্রা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের রায় সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বিশিষ্ট আইনজীবী সরদার আমজাদ আলী বলেন , দেশের সংবিধান শান্তিপূর্ণভাবে সভা-সমাবেশ করার অধিকার দিয়েছে তা কোনো সরকার বন্ধ করতে পারে না ।

তিনি বলেন ,হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছে তা সঠিক । কারণ  এটা প্রশাসনের কাজ ছিল । প্রশাসন অনুমতি দিয়ে দিলে বিজেপির এত প্রচার হত না । তারা আদালতেও যেত না । রাজ্যে বিজেপির যে সাংগঠনিক শক্তি আছে তা দিয়ে তারা কোনো বড় মাপের কিছু করতে পারত না । আর মমতা সরকার বিজেপিকে অনুমতি না দিয়ে পক্ষান্তরে বিজেপিকে মানুষের কাছে পৌছে দিতে সাহায্য করেছে ।  প্রবীণ আইনজীবী সরদার আমজাদ আলী আরও বলেন , শোনা যাচ্ছে শুক্রবার অর্থাৎ আগামী কাল মমতা সরকার সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে বিরুদ্ধে ডিভিসন বেঞ্চে যাচ্ছে । এতে হয়তো রথযাত্রা পিছিয়ে যেতে পারে তবে তা বন্ধ হবে বলে মনে হয় না । আর এতে সবচেয়ে বেশি ফায়দা হবে বিজেপির । সে রাজনৈতিকভাবে মানুষের আরও সহানুভূতি পাবে ।

আমজাদ সাহেব স্পষ্ট বলেন , আমরা বারবার বলে আসছি বিজেপির বি-টিম হল তৃণমূল । তা সকলের কাছে আজ সুস্পষ্ট রুপে ধরা পড়ল । বিজেপিকে রাজনৈতিক আন্দোলন করতে যত বাধা সৃষ্টি করবে ততই বিজেপির সুবিধা । বিজেপির সুবিধা করার জন্যই প্রশাসন অনুমতি দিচ্ছে না ; তখন তারা আদালতে যাচ্ছে । আর এটা গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশ করা হচ্ছে , ফলে বিজেপির রাজনৈতিক ফায়দা হচ্ছে ।

 

 


শেয়ার করুন
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment