কলকাতা 

জিএসটি কাউন্সিলকে অগ্রাহ্য করে প্রধানমন্ত্রী পণ্য পরিষেবা কর ঘোষণা করে সংবিধান বিরোধী কাজ করেছেন বলে অভিযোগ অমিত মিত্রের

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : রাজ্য সরকার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে জিএসটি কাউন্সিলের অবমাননার অভিযোগ তুলেছে। নবান্নে আজ এক সাংবাদিক বৈঠকে অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র এ অভিযোগ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিমান ,সিগারেট, অ্যালকোহল এবং এসইউভির মতো পণ্যগুলির ওপর ২৮ শতাংশ পণ্য পরিষেবা কর থাকার কথা ঘোষণা করেছেন। তার এই ঘোষণা সংবিধান বিরোধী বলে অর্থমন্ত্রীর অভিযোগ। তিনি বলেন কোন পণ্যের উপর জিএসটি বাড়ানো বা কমানো সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার একমাত্র জিএসটি কাউন্সিলের। সেটি একটি সাংবিধানিক সংস্থা।
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ওই সংস্থায় সমস্ত রাজ্যের অর্থমন্ত্রীরা রয়েছেন। আগামী ২২ ডিসেম্বর কাউন্সিল এর পরবর্তী বৈঠক রয়েছে। জিএসটি কাউন্সিলকে এড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী আগেভাগেই বিভিন্ন পণ্যের জিএসটির হার ঘোষণা করে দেওয়ায় অমিত মিত্র তাঁর বিরুদ্ধে সংবিধান অবমাননার অভিযোগ তুলেছেন। অ্যালকোহল জিএসটির আওতায় না পড়লেও কিভাবে প্রধানমন্ত্রী তার করের হার ঘোষণা করলেন তা নিয়েও তিনি প্রশ্ন তোলেন। এরপরে জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক করার আর কোন প্রয়োজনীয়তা থাকে না বলে অর্থমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন
।পাশাপাশি সংসদের অধিবেশন চলাকালীন  প্রধানমন্ত্রী সংসদের বাইরে জিএসটি সংক্রান্ত ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তিনি সংসদের অবমাননা করার ও অভিযোগ আনেন । অমিত  মিত্র বলেন, বিলাস সামগ্রীগুলিকে বাকি রেখে সমস্ত পণ্যের ওপর জিএসটির হার কমানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি একাধিকবার দাবি  তুলেছেন। তিনি নিজেও জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে এই দাবি নিয়ে সরব হন। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েও রাজ্যের তরফে জিএসটির হার পুনর্বিন্যাসের দাবি জানানো হয়েছে। কিন্তু তখন রাজ্যের দাবি মানা হয়নি। এখন কোন রকম আলাপ আলোচনা ছাড়াই প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা দুর্ভাগ্যজনক এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অর্থমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment