জেলা 

বিয়ের পরেও মেয়ে প্রেমিকের সঙ্গে পালালো, বাধা দেওয়ায় মেয়ের বাবাকে গাড়ি চাপা দিল প্রেমিক!

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মেয়ের প্রেম ছিল তা সত্ত্বেও অন্য জায়গায় অন্য এক পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেন বাবা কিন্তু বিয়ের পর বাড়িতে আসার পরেই মেয়ে তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে মেয়ের বাবা বাধা দিলে তাকে গাড়ির চাপা দিয়ে মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যায় প্রেমিক। এই ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূম জেলার বোলপুরের যজ্ঞনগর গ্রামে।

গ্রামেরই বাসিন্দা গাজু শেখের সঙ্গে নিহত কুদ্দুস শেখের মেয়ে কুতুবা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। যদিও গাজুকে কোনওদিনই পছন্দ করতেন না তরুণীর বাবা। তাই সম্বন্ধ করে গত সপ্তাহ মেয়ের অন্যত্র বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের সাতদিনের মাথায় সোমবার কুতুবা বাপের বাড়িতে আসেন। সে খবর পেয়ে যায় গাজু। চারচাকা গাড়িতে চড়ে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে আসে সে। অভিযোগ, ওই গাড়িতে চড়ে তরুণীকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে যুবক। তাতে বাধা দেন তরুণীর বাবা। গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে পড়েন।

Advertisement

অভিযোগ, এর পর কুদ্দুস শেখকে পিষে দেয় গাজু। সেই সময় গাড়িতে গাজুর পাশেই বসেছিল কুতুবা। ঘটনাস্থল ছেড়ে চড়ে যায় দুজনেই। রক্তাক্ত অবস্থায় তরুণীর বাবাকে উদ্ধার করা হয়। তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। তবে নিয়ে যাওয়ার পথেই মৃত্যু হয় কুদ্দুস শেখের। তরুণীর পরিবারের দাবি, কুতুবাকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়েছে গাজু। এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে বোলপুর থানার পুলিশ। তরুণী এবং গাজু দুজনেই ফেরার। যদিও নতুন জামাই এখনও শ্বশুরবাড়িতেই রয়েছেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ