কলকাতা 

‘ইন্ডিয়া’ সক্রিয় হতেই দাম কমলো এলপিজির প্রতিক্রিয়া মমতার

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : মোদি সরকার রান্নার গ্যাসের দাম সিলিন্ডার পিছু ২০০ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং উজ্জ্বলা প্রকল্পের মাধ্যমে যারা গ্যাস নিয়েছেন সেই সব পরিবারের জন্য ৪০০ টাকা গ্যাসের দাম  কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদি সরকার। এ নিয়ে বিজেপি এবং তার সহযোগী দলগুলি, সোশ্যাল মিডিয়ায় বড় করে প্রচার করছে অন্যদিকে মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তের পেছনে বিরোধী জোটের ঐক্য দেখছেন তৃণমূল নেত্রী তথা পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মোদি মন্ত্রী সভার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের টুইটের কিছুক্ষণ পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে লিখেছেন,‘‘বিরোধী ‘ইন্ডিয়া’ জোট তৈরি হওয়ার পর মাত্র দু’টি বৈঠকে বসেছে। তার মধ্যেই রান্নার গ্যাসের দাম সিলিন্ডার প্রতি ২০০ টাকা করে কমে গেল।’’

Advertisement

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এক্স হ্যান্ডলে জানান, রাখী এবং ওনাম উপলক্ষে রান্নার গ্যাসের দাম কমিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিরোধীরা তা মানতে নারাজ। তাদের দাবি, পাঁচ রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার। মমতা স্পষ্ট জানান, বিরোধী জোটের চাপে পড়ে এটা সম্ভব হয়েছে।

বিরোধী দলগুলো ‘ইন্ডিয়া’ নাম নিয়ে এক ছাতার তলায় আসার পর থেকেই মোদী সরকারকে আক্রমণ করে চলেছে। টোম্যাটো, পেঁয়াজের মতো নিত্যদ্রব্যের দাম বৃদ্ধি নিয়েও কেন্দ্রকে একহাত নিয়েছে বিরোধীরা। প্রধানমন্ত্রী আমেরিকা সফর সেরে ফেরার পর এই নিয়ে সরব হয়েছেন মমতাও। দেশে টোম্যাটোর দাম যখন বৃদ্ধি পাচ্ছে, তখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ‘আমেরিকাকে কত টাকা দিয়ে এলেন’, সে প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মুম্বইয়ে টোম্যাটোর দাম ১২০ টাকা কেজি, দিল্লিতে দাম ১০০ টাকা কেজি। টোম্যাটোর জন্য সহায়ক মূল্যও কেন্দ্র দেয় না।” এ বার কেন্দ্র রান্নার গ্যাসের দাম কমানোর পরেই ফের কটাক্ষ করলেন মমতা। জানালেন, বিরোধী জোটের চাপেই এই পদক্ষেপ করতে বাধ্য হয়েছে মোদী সরকার। জোটের মাত্র দুটো বৈঠকেই চাপে পড়েছে সরকার, ঠারেঠোরে বলেছেন তা-ও।

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ