দেশ 

বিরোধীরা এক জোট হয়ে সরকার গড়তে পারে এই আশঙকায় জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভা ভেঙে দিল রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক , বিরোধীরা যেতে পারে আদালতে

শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিরোধীদের সরকার গঠনের উদ্যোগ ভেস্তে দিতে জম্মু ও কাশ্মীরের বিধানসভা ভেঙে দিলেন রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। গতকালই কংগ্রেসের উদ্যোগে মেহবুবা, ওমর এক হয়ে সরকার গঠনের জন্য সিদ্ধান্ত নেন। এই সিদ্ধান্তের খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক মহলের একাংশের অনুমান জোট তৈরি হলে রাজ্যে অনিশ্চয়তা বাড়তে পারে। সেইজন্য বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন রাজ্যপাল। এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছে পিডিপি। রাজ্যপালের সঙ্গে দেখাও করেছেন পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর, রাজ্যপাল জানান, তাঁর কাছে কোনও পক্ষই সংখ্যা নিয়ে কোনও রকমের প্রমাণ নেই। সেই পরিস্থিতিতে বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর আগে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি বিধানসভা ভাঙার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। রাজ্যে পিডিপি, এনসি এবং কংগ্রেস একসঙ্গে এলে আগামী লোকসভা নির্বাচনে জম্মু-কাশ্মীরে কোনোভাবেই সফল হতে পারবে না বিজেপি । তাই মোদীর নির্দেশেই ভেঙে দেওয়া হলে জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভা  ।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীব গওবা সকাল থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছিলেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, বিকেলে মধ্যপ্রদেশে ভোটপ্রচার সেরে ফেরার পরেই রাজনাথ সিং পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। রাত আট-সাড়ে আটটা নাগাদ পরিষ্কার হয়ে যায় বিধানসভা ভেঙে দেওয়া ছাড়া রাজ্যপালের কাছে আর কোনও উপায় নেই। রাজনৈতিকদলগুলির সঙ্গে বেশ কয়েকদফা বৈঠকের পর মেহবুবা মুফতি বুধবার বিকেলে রাজ্যপালের কাছে চিঠি পাঠান, সরকার গঠনের দাবি করে। চিঠিতে তিনি জানান, তাঁর দাবিতে সমর্থন করেছে কংগ্রেস ও এনসি। শোনা যাচ্ছে , রাজ্যপালের এই নির্দেশের বিরুদ্ধে আদালতে যেতে পারে কংগ্রেস-পিডিপি-এনসি।


শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment