জেলা 

মোদীজি একবার ইশারা করলেই পশ্চিমবাংলায় তৃণমূলের নাম মাটিতে মিশিয়ে দেওয়া হবে; কেউ জানবে না, তৃণমূল বলে কোনও দল ছিল রাজ্যে , হুংকার বিজেপির রাজ্য সম্পাদকের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে বিজেপির নেতারা এখন হুমকি দিয়ে রাজনৈতিক ময়দান গরম করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। কয়েকদিন ধরে  বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ হুংকার দিয়ে চলেছেন ।  সম্প্রতি তিনি অন্ডালে এক সভায় তৃণমূলকে হুমকি দয়ে বলেছিলেন , ‘ মারব এখানে , লাশ পড়বে যেখানে সেখানে “ ।এবার রাজ্য সভাপতির বক্তব্যকে অনুসরণ করেই আরও কড়া ভাষায় বিজেপি সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেছেন , বিজেপির রথ আটকাতে পারবে না কেউ। কেউ আটকাতে এলে আমাদের দলের যুবমোর্চার কর্মীরা তাঁদের মাটিতে পুতে দেবে। এর আগে দিলীপ ঘোষ লাশ ফেলে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন, তারই পদাঙ্ক অনুসরণ করে মাটিতে পুতে দেওয়ার হুঙ্কার ছাড়লেন সায়ন্তন।
এ প্রসঙ্গে সায়ন্তনবাবু সংবাদ-মাধ্যমকে বলেছেন, রথযাত্রায় নিরাপত্তায় পুলিশকে পাশে পাওয়া না গেলে নিজেদেরকেই সেই ভূমিকা নিতে হবে। তা না হলে রথ এগিয়ে যাবে কী করে। সেখানে রথ যদি কেউ আটকাতে আসে, আমরা কী চুপ করে ফিরে যাব। যেখানে বাধা আসবে, সেখানে ডান্ডা হাতেই মোকাবিলা করা হবে। রথের সমানে বাধার প্রাচর হয়ে কেউ এসে দাঁড়ালে তাঁকে পিষে দিয়ে মাটিতে পুতে দেওয়া হবে।

এদিন মেদিনীপুরের বিদ্যাসাগর হলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে আরও বলেন , অভিষেক বলেছেন , মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুমতি দিলে বিজেপি-র রথের চাকা গড়াবে না । তৃণমূল সাংসদের এই বক্তব্যকে কটাক্ষ করে বিজেপি-র রাজ্য সম্পাদক বলেন , প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজি একবার ইশারা করলেই পশ্চিম বাংলায় তৃণমূলের নাম মাটিতে মিশিয়ে দেওয়া হবে। কেউ জানবে না, তৃণমূল বলে কোনও দল ছিল রাজ্যে।

অবশ্য  সায়ন্তন রাজ্যের মুসলিম সম্প্রদায়কে আশ্বস্ত করে বলেন ,বিজেপি মুসলিমবিরোধী নই। এনআরসিতে বাংলাদেশের অনুপ্রবেশকারীদের বিরোধিতা করেছি। বাংলার মুসলিমরা ভুল বুঝবেন না। আমরা ইমামভাতারও বিরোধিতা করেছি।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment