প্রচ্ছদ 

SSC: ২০১৬ – র মেধাতালিকায় নাম থাকা সবাইকে চাকরি! হাই কোর্টকে জানাল এসএসসি, একটানা আন্দোলন ও আইনি লড়াইয়ে এলো এই জয়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : শেষ পর্যন্ত কলকাতা হাইকোর্টের চাপের ফলে স্কুল সার্ভিস কমিশন আজ শুক্রবার জানিয়ে দিল, ২০১৬ সালের প্যানেলে ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের চাকরির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পুরনো মেধাতালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও যাঁরা চাকরি পাননি, তাঁরা শীঘ্রই চাকরি পাবেন। শুক্রবার কলকাতা হাই কোর্টে এমনটাই জানালেন এসএসসি কর্তৃপক্ষ। রাজ্য মন্ত্রিসভা স্কুলে নতুন পদ তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই কমিশন নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশে নিয়োগের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দফতর একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে। তাতে বলা হয়েছে, রাজ্যে নতুন করে ৬,৮৬১টি পদ তৈরি করা হচ্ছে। তার মধ্যে নবম-দশমে ১,৯৩২টি এবং একাদশ-দ্বাদশে ২৪৭টি পদ তৈরি করা হবে। এ ছাড়াও গ্রুপ সি-র জন্য ১,১০২টি এবং গ্রুপ ডি-র ১,৯৮০টি পদ রয়েছে। কর্মশিক্ষায় ৭৫০ এবং শারীরশিক্ষায় ৮৫০টি পদ রয়েছে ওই তালিকায়। হাই কোর্টের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে সরকারের তরফে। শুক্রবার আদালতে এই তথ্য দিয়েছেন কমিশনের আইনজীবী সম্রাট সেন। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, মেধাতালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও যাঁরা চাকরি পাননি, মূলত তাঁরাই এত দিন চাকরির জন্য আন্দোলন করছিলেন। এ বার তাঁদেরই চাকরির ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানাল কমিশন।

হঠাৎ নতুন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মামলাকারী এবং আদালতের উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে বলেই আদালতে জানান মামলাকারীর আইনজীবী ফিরদৌস শামিম। তাঁর কথায়, ‘‘রাজ্য সরকারের এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি আসলে চাপের কৌশল। মামলাকারী এবং আদালতের উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে।’’

গতকাল বৃহস্পতিবার স্কুল শিক্ষা দপ্তর বিজ্ঞপ্তি জারি করে নতুন পদের কথা ঘোষণা করার পরে মনে করা হচ্ছিল এসএসসির আন্দোলনরত হবু শিক্ষকেরা খুব তাড়াতাড়ি শিক্ষকতার চাকরি পেয়ে যাবে। আজ শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী এ কথা জানানোর পর অন্তত এটা স্পষ্ট হলো যে প্রায় ছয় বছর পর ওই সব ছেলেমেয়েরা শিক্ষকতার চাকরি পেতে চলেছে। দীর্ঘ আন্দোলন ও আইনি লড়াইয়ের ফলে তাদের এই সাফল্য এসেছে বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে। একটানা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করেছে সফল পরীক্ষার্থীরা একই সঙ্গে আইনি লড়াই করেছে তাতে দাঁত চেপে শেষপর্যন্ত সফল হয়েছে তাদের ধরা দিল কিন্তু এরই মধ্যে ছটা বছর চলে গেছে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ