দেশ 

‘‘দেশে জোট কাজে আসছে না, তাই বিদেশে জোট করতে চাইছে কংগ্রেস, বিদেশিরা যদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী ঠিক করেন, তা হলে কে বসবেন সেই চেয়ারে?’’ রাফাল নিয়ে রাহুলকে কটাক্ষ মোদীর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : রাফাল নিয়ে একের পর এক বোমা ফেলছেন রাহুল গাঁধী। কিন্তু তার জবাব দিয়ে দুর্নীতির প্রসঙ্গ তুললেনই না। উল্টে কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন বাছা বাছা কিছু বিশেষণে।

কংগ্রেস সভাপতি শুরু করেছিলেন সংসদের বাদল অধিবেশনে। রাহুল গাঁধী সংসদের ভিতরেই দাবি করেছিলেন, ফরাসি সংস্থা দাসো অ্যাভিয়েশন-এর কাছ থেকে যুদ্ধবিমান কেনায় ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। তার পর থেকে যত  সময় গড়িয়েছে রাফাল দুর্নীতি নিয়ে সুর উচ্চগ্রামে তুলেছে কংগ্রেস। এই পরিস্থিতিতে আগুনে ঘি ঢেলেছেন  প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ। রাফাল চুক্তি যখন হয়, তখন তিনি-ই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। আর তাতে অস্বস্তি বেড়েছে বিজেপির।

রাহুল গান্ধী মাঠে-ময়দানে বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে রাহুল নানা ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ করলেও এত দিন এ নিয়ে একটি শব্দও খরচ করেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মঙ্গলবার  মধ্যপ্রদেশের ভোপালে দলীয় একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রক্ষণাত্মক ভঙ্গি জবাব দিলেন। অথচ, এক বারের জন্য বলতে পারলেন না ফ্রান্স থেকে রাফাল যুদ্ধবিমান কেনায় দুর্নীতি হয়নি। একবারও ‘রাফাল’ শব্দ উচ্চারণ না করলেন না । তবে তিনি বলেছেন, একটু ঘুরিয়ে । দেশপ্রেমের সংঞ্জার পাঠ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, ‘‘কংগ্রেস নেতারা অভিধান থেকে বেছে বেছে শব্দ নিয়ে বিজেপিকে গালি দিচ্ছেন। অথচ নিজেরা এক বারও ভেবে দেখছেন না, কেন শতাব্দীপ্রাচীন দলের আসন সংখ্যা নামতে নামতে ৪৪-এ এসে ঠেকেছে। ক্ষমতা হারিয়ে ভারসাম্যও হারিয়ে ফেলেছেন দলের নেতারা।’’ নাম না করেও সুকৌশলে রাফাল নিয়ে ওলাঁদের মন্তব্য টেনে বলেন, ‘‘দেশে জোট কাজে আসছে না, তাই বিদেশে জোট করতে চাইছে কংগ্রেস।’’ প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘‘বিদেশিরা যদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী ঠিক করেন, তা হলে কে বসবেন সেই চেয়ারে?’’ খোঁচার নিশানায় অবশ্যই রাহুল গাঁধী।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment