দেশ 

Rape : নাবালিকাকে গণধর্ষণ করে যৌনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেওয়া হল ধারালো অস্ত্র, সংকটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি নাবালিকা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নাবালিকাকে গণধর্ষণ করে যৌনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেওয়া হল ধারালো অস্ত্র। রাজস্থানের অলওয়ার জেলায় এ সপ্তাহে ঘটেছে এই ঘটনা। সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ১৬ বছরের ওই নাবালিকা।

পুলিশ জানিয়েছে, বিশেষভাবে সক্ষম ওই নাবালিকাকে তিলজারা উড়ালপুলের নীচে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। অভিযোগ, গণধর্ষণের পর নাবালিকার গোপনাঙ্গে ধারালো অস্ত্র ঢুকিয়ে দিয়েছেন অভিযুক্তরা। তার পর তাকে উড়ালপুল থেকে নীচে ফেলে দেওয়াও হয়েছিল।

মঙ্গলবার নাবালিকাকে উদ্ধার করে অলওয়ারের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে পারেননি চিকিৎসকেরা। সেখান থেকে জয়পুরের জেএন লোক হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। বুধবার আড়াই ঘণ্টা ধরে অস্ত্রোপচার হয়েছে। সেখানেই চিকিৎসাধীন নির্যাতিতা। তবে তার অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, নাবালিকার শরীরে অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন অঙ্গ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। গোপনাঙ্গ থেকে ধারাল অস্ত্রও উদ্ধার করেছেন চিকিৎসকেরা। নাবালিকার স্বাস্থ্যের প্রতি নজরদারি চলছে বলে জানিয়েছেন ওই হাসপাতালের চিকিৎসক অরবিন্দ শুক্ল।

এই ঘটনায় এখনও অভিযুক্তদের ধরতে সমর্থ হয়নি পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলের ২৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে থাকা ৩০০-র বেশি সিসিটিভি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রাজস্থানের মহিলা এবং শিশুবিকাশ দফতরের মন্ত্রী মমতা ভূপেশ আশ্বাস দিয়েছেন, অভিযুক্তদের শীঘ্রই গ্রেফতার করা হবে। নাবালিকার পরিবারকে ৬ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন তিনি। নাবালিকার পরিবারের লোকেরা দিনমজুরের কাজ করেন। ওই নাবালিকার ভাই ও বোন আছে। সৌজন্যে ডিজিটাল আনন্দবাজার।

 

Advertisement


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ