কলকাতা 

মূল-নিবাসী রাজনৈতিক দলগুলির যৌথ রাজনৈতিক কনভেনশনে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন করার শপথ নিলেন,ইমতিয়াজ-নজরুল-সঞ্জয়-সুচেতারা

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : রাজ্যের মূল নিবাসীদের রাজনৈতিক প্লাটফর্ম অনেকগুলি থাকলেও রবিবার কলকাতার মৌলালী যুব কেন্দ্রে তিনটি রাজনৈতিক দল যৌথভাবে রাজনৈতিক কনভেনশনের আয়োজন করে । এই কনভেনশনে প্রচুর মানুষ হাজির ছিল । মৌলালী যুব কেন্দ্রে উপছে পড়া ভিড়ের মধ্যে তিনটি রাজনৈতিক দলের নেতারা উপস্থিত শ্রোতাদের যা জানালেন , তারা ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী দিনগুলিতে লড়াই করতে চায়। কোন বাধা তাঁদেরকে এই জোট থেকে সরাতে পারবে না। এদিনের সভায় দলের নেতারা নয় , কর্মীরা বেশি বক্তব্য রেখেছেন। তাদের বক্তব্যের উঠে এসেছে দলিত আন্দোলনের নানা অভিঞ্জতার কথা।

 

এদিন সভার শুরুর প্রথমের দিকেই বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী আবু রিদা, ২০০ বছরের প্রাচীন হুগলী মাদ্রাসা বন্ধ হওয়ার করুণ কাহিনী তুলে ধরেন। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর হুগলী মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে মাদ্রাসা অবিলম্বে খোলার দাবিতে বিশাল সমাবেশের আয়োজন করার কথা তিনি বলেন। এক দলিত সমাজের এক সাহিত্যিক দাবি করেন, সাংস্কৃতিক মেল-বন্ধনের মাধ্যমে দলিত-মুসলিম ঐক্য গড়ে তোলা সম্ভব । নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি অফ ইন্ডিয়ার পক্ষে সঞ্জয় সরকার বলেন, আমরা চাই সকলের জন্য সম-মানের শিক্ষা,স্বাস্থ্য ,খাদ্য , পানীয় জল,সুবিচার , সম্পদের সম বন্টন , আধুনিক কৃষিবিদ্যা , উন্নত প্রযুক্তি বিঞ্জান , আধুনিক কল কারখানা , সকলের জন্য যোগ্যতাানুসারে কাজ , সমাজের সকল স্তরের ৬০ বছরের উর্ধ্ব মানুষের জন্য পেনশন ও নারীদের সুরক্ষা জন্য আমাদের দল লড়াই করছে এবং আগামীতেও করবে।

তৃণমূল ছেড়ে সদ্য যোগ দেওয়া মাওলানা কেফাতুল্লাহ সাহেব ডেমোক্রেটিক পার্টির পক্ষে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি এক সময় তৃণমূল করতাম তাই ভালভাবে বলতে  পারি আমাদের মুখ্যমন্ত্রীর কাজের চেয়ে ডায়লগ বেশি । তাই তিনি কোন কাজ না করেই বলে দিতে পারেন সংখ্যালঘুদের সব কাজ করে দিয়েছেন।

সিদ্ধানন্দ পুরকাইত বলেন,আমরা মূলনিবাসীরা সিংহভাগ জনগোষ্ঠী হওয়া সত্ত্বে উচ্চবর্ণ দ্বারা পরিচালিত । ৯৪ শতাংশ হওয়া সত্ত্বে আমরা সব দিক থেকে বঞ্চিত । তিনি দাবি করেন, ওবিসিদের জন্য জনপ্রতিনিধিদের সংরক্ষণ করতে হবে। হাসিবুর রহমান বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, আমরা পারব এই বিশ্বাস থেকে আমাদেরকে সম্মিলিতভাবে লড়াই করতে হবে।

 

এদিন ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল পার্টি বা ডিএনপি , নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি অফ ইন্ডিয়া বা এনডিপিআই ও মূল নিবাসী পার্টি অফ ইন্ডিয়া বা এমএনপি- এই তিনটি দল মৌলালী যুব কেন্দ্রে যৌথ রাজনৈতিক কনভেনশনের আয়োজন করেছে। অন্যান্য বিশিষ্টদের মধ্যে এদিনে সভায় বক্তব্য রাখেন রাজিন্দার প্রসাদ নস্কর, আরতি রায়, অমৃত মন্ডল , শান্তিরঞ্জন সামন্ত, সুচেতা গোলদার প্রমুখ। এদিনের সভায় সভাপতির আসন অলংকৃত করেন এনডিপিআই-র সভাপতি শ্রী বিমল চন্দ্র মন্ডল এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. অরুণ মাঝি ।


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment