জেলা 

মহিষাদলের রথযাত্রা ২৪১ বছরে পদাপর্ণ করল, মেচেদায় ইসকনের রথযাত্রার সূচনা করলেন মন্ত্রী শুভেন্দু

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : পুরী মাহেশের পর পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলের রথ বিখ্যাত। যা এবারে ২৪১ বছরে পদার্পণ করেছে।  ১৭৭৬ সালে মহিষাদলের রাজা আনন্দলাল উপাধ্যায়ের পত্নী রানী জানকি এই রথযাত্রা শুরু করেন। আজ পালকি করে রাজ পরিবারের সদস্য হরপ্রসাদ গর্গ এসে রথের রশিতে হাত দেওয়ার পর রথ চলা শুরু হয়। এই রথকে কেন্দ্র করে প্রায় এক মাস ধরে চলে মেলা। সব জায়গায় জগন্নাথ দেবের রথ চললেও মহিষাদলের রথে বিরাজ করেন রাজ পরিবারের কুলদেবতা গোপালজীউ। প্রথমে ১৭ চূড়ার রথ ছিল। এখন তা ১৩ চূড়া করা হয়েছে। আগের থেকে মেলার পরিধি অনেক বেড়েছে। এখন রথ চালানোর দায়িত্ব রাজ পরিবারের হাতে থাকলেও মেলা চালায় পঞ্চায়েত সমিতি। মহিষাদলের প্রাচীন রথ দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিল। রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী ও পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে ২৮লক্ষ টাকা। দু’শো বছরে তিন বার এই রথের আমূল সংস্কার হয়েছে। প্রথমবার ১৮৬০সালে রাজা লছমনপ্রসাদ গর্গের সময়ে রথ ১৭চূড়া থেকে ১৩চূড়া করা হয়েছিল। রাজার বন্ধু শিল্পী মঁসিয়ে পেরুর নির্দেশে রথের সৌন্দর্যায়ন করা হয়। এরপর ১৯১২সালে রাজা সতীপ্রসাদ গর্গের সময়ে এবং শেষবার ২০১৭সালে। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা,হাওড়া,পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা থেকেও অনেক দর্শনার্থী আসে এই রথের মেলায়।

মেচেদা ইস্কনের রথযাত্রার শুভ সূচনা এবংহলদিয়া উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে মেচেদা থেকে ইস্কন মন্দির অবধি ঢালাই রাস্তার শুভ উদ্বোধন করলেন মাননীয় পরিবহন ও পরিবেশ মন্ত্রী শ্রী শুভেন্দু অধিকারী মহাশয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment