দেশ 

উদ্ধবের মন্ত্রীসভায় উপ-মুখ্যমন্ত্রী হলেন অজিত , শপথ নিলেন ৩৬ মন্ত্রী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কাকার অবাধ্য ভাইপো । বিজেপিকে সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করে ফেলেছিলেন । কিন্ত কাকার অনড় মনোভাবে ফের ফিরে আসতে বাধ্য হন অজিত পাওয়ার । তবে বিজেপির সঙ্গে তিনি যখন ছিলেন তখন তিনি ছিলেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী । এবার নানা টালবহানার পর আজ ২০১৯ শেষ হওয়ার একদিন আগে মহারাষ্ট্রেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিলেন অজিত পাওয়ার ।

সোমবার মহারাষ্ট্রে উদ্ধব ঠাকরের মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ হল। শপথগ্রহণের তালিকায় অজিত পওয়ারের পাশাপাশি আদিত্য ঠাকরেও ছিলেন। সরকার গঠন ঘিরে যখন মহারাষ্ট্রে টানপড়েন চলছিল, এবং শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের সরকার গঠনের তোড়জোড় চলছিল, তখন জল্পনা তৈরি হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন উদ্ধবপুত্র। রাজভবনে যাওয়া থেকে শুরু করে শিবসেনা বিধায়কদের সঙ্গে আলোচনা পর্বেও গুরুত্ব বাড়ছিল আদিত্যর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিন দলের নেতা হিসেবে উদ্ধব মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসেছেন। এ বার আদিত্যকেও মন্ত্রিসভায় আনলেন উদ্ধব। তবে তাঁকে কোন মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হবে, তা এখনও ঠিক হয়নি বলেই সেনা সূত্রে খবর।

এর বাইরে তিন দলেরই এক ঝাঁক মন্ত্রী আজ বিধানসভায় শপথ নিয়েছেন। মহারাষ্ট্র বিধানসভায় ২৮৮ আসন। নিয়ম অনুযায়ী মোট বিধায়ক সংখ্যার  ১৫ শতাংশ হিসেবে ৪৩ জনের বেশি মন্ত্রিসভা হতে পারে না। গত ২৮ নভেম্বর উদ্ধব ঠাকরে-সহ মোট সাত জন শপথ নিয়েছিলেন। আজ বাকিদের শপথগ্রহণ হবে।

কংগ্রেসের পক্ষ থেকে শপথ নিয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অশোক চহ্বাণ, কে সি পাডভি, বিজয় ওয়াডেত্তিওয়ার, অমিত দেশমুখ, সুনীল কাডকার, যশোমতি ঠাকুর, বর্ষা গায়কোয়াড়, আসলাম শেখ, সতেজ পাতিল এবং বিশ্বজিৎ কদমের মতো বিধায়করা। অশোক চহ্বণ পেতে পারেন পূর্ত দফতরের দায়িত্ব।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment