আন্তর্জাতিক 

পাকিস্থানে জঙ্গীদের অস্তিত্ব আছে স্বীকার করে নিয়েও, সন্ত্রাস দমনে তাঁর সরকার আন্তরিক দাবি পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ভারত দীর্ঘদিন ধরে যে অভিযোগ করে আসছিল তা কার্যত স্বীকার করে নিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান । তিনি এক সংবাদ মাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে স্বীকার করেছেন পাকিস্থানে এখনও ৩০-৪০ হাজার জঙ্গি রয়েছে যারা আফগানিস্তান ও কাশ্মীরের কিছু অংশে প্রশিক্ষণ নিয়েছে।  সেই সঙ্গে পাকিস্তানের এই পরিস্থিতির জন্য আগের সরকারগুলোকেই দায়ী করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, “সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কোনও রকম আগ্রহই দেখায়নি আগের সরকার। এ ব্যাপারে তাদের কোনও রাজনৈতিক সদিচ্ছাও ছিল না।” পাশাপাশি তিনি এটাও জানান, আগের সরকার যে কাজ করেছে, তার পুনরাবৃত্তি হতে দেবে না তাঁর সরকার। সন্ত্রাস দমনে তাঁর সরকার অনেক বেশি উদ্যোগী বলেও দাবি করেন ইমরান।

ইমরান বলেন, “সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আমেরিকা যে যুদ্ধের ডাক দিয়েছিল তাতে অংশ নিয়েছিল পাকিস্তান। তবে ৯/১১-র ঘটনায় পাকিস্তানের কোনও যোগ ছিল না।” এর পরই তাঁর মন্তব্য, সে সময় পাকিস্তানই দেশের ভিতরের সন্ত্রাসবাদ থেকে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই চালাচ্ছিল। কিন্তু তার পরেও আমেরিকার সঙ্গে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নিয়েছে তারা।

পূর্বসূরিরা যে ভুল করে গিয়েছেন, সে ভুল আর করতে চান বলেও ইঙ্গিত দেন ইমরান। তাঁর দাবি, পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদ দমনে জোরকদমে চেষ্টা চালাচ্ছে। তালিবানদের আলোচনার টেবিলে নিয়ে আসার কাজ শুরু করেছে তারা। ভাল সাড়াও মিলেছে। তবে বিষয়টা খুব সহজেই মিটবে বলে মনে করছেন না ইমরান। শান্তি ফিরিয়ে আনতে যা যা করা প্রয়োজন তাই করবেন। শুধু তাই নয়, এ বিষয়ে কী ভাবে তাঁরা এগোচ্ছেন গোটা প্রক্রিয়াটাই আমেরিকাকে জানাবে পাকিস্তান, এমনটাই দাবি ইমরানের।  তিনি আরও বলেন, “গোটা দেশ আমার সঙ্গে আছে। পাক সেনারাও সঙ্গে আছে। আমাদের সবারই একটাই মূল লক্ষ্য, যত দ্রুত সম্ভব শান্তি ফিরিয়ে আনা।”


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment