দেশ 

সোনিয়ার হস্তক্ষেপেই কর্ণাটকের বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়করা ঘরে ফিরছেন ! সংকট কী কাটতে চলেছে কুমারস্বামী সরকারের ?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কর্ণাটকের জেডিএস ও কংগ্রেস জোট সরকারের কাছে আশার আলো দেখা দিয়েছে । কয়েক দিন টানাপোড়েনের পর কংগ্রেসের বিধায়ক এমটিবি নটরাজন পদত্যাগ পত্র ফিরিয়ে নিতে চলেছেন বলে সংবাদ । এই একজন কংগ্রেস বিধায়ক পদত্যাগের হিড়িকে সামিল হয়ে জোট সরকারকে সমস্যায় ফেলেছিলেন ।

শনিবার বিকেলে  কংগ্রেস নেতা ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া এবং কুমারস্বামীর সঙ্গে বিকেল থেকে দফায় দফায় বৈঠকের পর নটরাজন জানান তিনি পদত্যাগ ফিরিয়ে নেবেন। এখানেই শেষ নয় বিদ্রোহী অন্য বিধায়কদেরও মত পরিবর্তনের জন্য বোঝানোর চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন নটরাজন। সিদ্দারামাইয়া এবং কুমারস্বামী ও কংগ্রেস হাইকমান্ডও  বারবার অনুরোধ করেছেন দলে থাকার জন্য। তাই তাঁদের অনুরোধের মান রাখতেই দলে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন নটরাজন। বিদ্রোহী সুধাকর রাওকেও তিনি বোঝানোর চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন।

বিদ্রোহী বিধায়ক নটরাজন প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেছেন সুধাকর রেড্ডিও পদত্যাগ পত্র ফিরিয়ে নেবেন। নটরাজন জানিয়েছেন বিদ্রোহী কংগ্রেস নেতাদের বারবার পদত্যাগ পত্র ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করেছেন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা। সেকারণেই এই পদত্যাগ সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেওয়ার কথা বিদ্রোহী বিধায়কদের বিবেচনা করতে বলা হয়েছে।

বিশেষ সূত্রে জানা গেছে , কংগ্রেসের নেত্রী সোনিয়া গান্ধীর ব্যক্তিগত উদ্যোগেই কর্ণাটকে বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়কদের সুর নরম হয়েছে । আর এটা কাজে লাগাতেই এবার সিদ্দরামাইয়া ও কুমারস্বামী বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়ক দলের নেতা এমটিবি নটরাজনের সঙ্গে বৈঠক করেন । নটরাজনের অবস্থার স্পষ্ট হয়ে যাওয়ার পর কংগ্রেস ও জেডিএস নেতৃত্ব আশা প্রকাশ করছেন সোমবারের মধ্যেই সরকারের সংকট মিটে যাবে । এ থেকে কংগ্রেস দলকে একমাত্র গান্ধী পরিবারই ঐক্যবদ্ধ রাখতে সক্ষম ।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment