কলকাতা 

প্রধানমন্ত্রী শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট করে ঘরছাড়া তৃণমূল কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে নৈহাটিতে অবস্থানে বসছেন মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আবার রাস্তায় নামতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । দলের দূর্দিনে সাধারন মানুষের কাছে পৌছাতে এবার রাস্তায় নেমে এলেন তৃণমূল নেত্রী । লোকসভা ভোটের ফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকে রাজ্য জুড়ে তৃণমূল কর্মী ও নেতাদের উপর বিজেপি কর্মী সমর্থকরা হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের । মড়ার উপর খাড়ার ঘায়ে মত তৃণমূলের একাধিক বিধায়ক ও কাউন্সিলার পঞ্চায়েত প্রতিনিধি যোগ দিচ্ছে বিজেপিতে । এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল নেত্রী রাস্তায় নামা ছাড়া আর কোনো পথ ছিল না ।

তাই আগামী কাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী র শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে না গিয়ে তিনি নৈহাটি যাচ্ছেন । আগামিকাল নৈহাটি পুরসভার সামনে তৃণমূলের অবস্থান কর্মসূচি। দলের অবস্থান কর্মসূচিতে যোগ দিতেই কাল নৈহাটিতে যাচ্ছেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর এই কর্মসূচির পরিকল্পনা রূপায়ণের বৈঠক শেষে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকবলেন, ‘‘ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতে নৈহাটিতে আসছেন তৃণমূল সুপ্রিমো’’।

প্রসঙ্গত, ভাটপাড়ায় উপনির্বাচন ঘিরে অশান্ত হয়ে ওঠে এলাকা। বহু ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। বহু মানুষই নির্বাচনের পর থেকে ঘরছাড়া। সেই ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতেই কাল নৈহাটিতে অবস্থান কর্মসূচি তৃণমূলের।

এদিকে, শেষ মুহূর্তে নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যাওয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচনের পর রাজনৈতিক হিংসার জেরে পশ্চিমবঙ্গে ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করছে বিজেপি এবং সেই মর্মে সংবাদমাধ্যমে খবরও প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু এই তথ্য সঠিক নয়। আর এর প্রতিবাদেই মোদীর শপথ গ্রহণে অনুপস্থিত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানকে ‘গণতন্ত্রের মহৎ উদযাপন’ আখ্যা দিয়ে মমতা বলেন, এই অনুষ্ঠানকে অপব্যবহার করে রাজনৈতিক ফসল তোলা উচিত না। নিজের এই সিদ্ধান্ত বদলের কথা বুধবার টুইট করে জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, সাংবিধানিক সৌজন্য মেনেই একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যাবেন। তিনি এও জানিয়েছিলেন যে, এ ব্যাপারে কয়েকজন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও তাঁর কথা হয়েছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment