জেলা 

অনুব্রতের গড়েও মুকুলের থাবা ; মনিরুল-গদাধর-আসিফ সহ এক ঝাঁক তৃণমূলের বিধায়ক ও নেতা যোগ দিল বিজেপিতে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গতকালের পর আবারও তৃণমূলে ‘ভাঙন’ ধরাল বিজেপি। এবার দলে এলেন বামেদের এক সময়কার অত্যাচারী বিধায়ক হিসাবে পরিচিত মনিরুল ইসলাম । তিনি ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক ছিলেন পরে তৃণমূলে যোগ দেন এবং এখন তৃণমূলের বীরভূম জেলার লাভপুরের বিধায়ক । তাঁর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগও রয়েছে । বুধবার এহেন একজন বিধায়ককে দলে নিল বিজেপি । এদিন দিল্লিতে বিজেপি সদর দফতরে পদ্ম পতাকা হাতে তুলে নেন মণিরুল। নানুরের প্রাক্তন বিধায়ক গদাধর হাজরাও যোগ দিলেন বিজেপিতে। পদ্মশিবিরে যোগ দিলেন বীরভূম জেলা যুব তৃণমূলের সাধারন সম্পাদক মহম্মদ আসিফ ইকবালও। মুকুল রায় ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয়ের হাত ধরে এদিন বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূল নেতা নিমাই দাসও।

বীরভূম মানেই অনুব্রত মণ্ডলের গড়  তৃণমূলের এই  ‘সুরক্ষিত’ গড়েই থাবা বসালেন মুকুল রায় । আর,এতে মমতা বাহিনী বড়সড় ধাক্কা খেল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। অন্যদিকে, অনুব্রত মণ্ডলের দাপটে বীরভূম নিয়ে বরাবরই নিশ্চিন্তে থাকে দলীয় নেতৃত্ব। কিন্তু এবারের নির্বাচনে বীরভূমের দুই লোকসভা কেন্দ্র নিজেদের দখলে রাখলেও ‘আশানরূপ’ ফল হয়নি তৃণমূলের। বিধানসভা ভোটের ফলাফলের নিরিখে অনেকটাই ভাল ফল করেছে বিজেপি। লাল মাটির রাজ্যে বিজেপির এই ‘বাড়বাড়ন্ত’ নিয়েই কপালে ভাঁজ পড়েছে তৃণমূলের কেষ্টর। এমন পরিস্থিতিতে মণিরুলের মতো তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগদান  অনুব্রতর কাছে  ‘বড় আঘাত’ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

মঙ্গলবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে পদ্মপতাকা হাতে তুলে নেন বীজপুরের তৃণমূলের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়। শুভ্রাংশুর পাশাপাশি সেদিন আরও দুই বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিলেন। বিজেপিতে যোগ দেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তুষারকান্তি ভট্টাচার্য ও হেমতাবাদের সিপিএম বিধায়ক দেবেন্দ্র রায়। অন্যদিকে, মমতা বাহিনীকে বড়সড় ধাক্কা দিয়ে একঝাঁক তৃণমূল কাউন্সিলর এদিন বিজেপিতে যোগ দিলেন। কাঁচরাপাড়া, হালিশহর ও নৈহাটি পুরসভার বিজেপি দখল নিয়েছে বলে দাবি করেছেন মুকুল রায়রা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment