কলকাতা 

রেশন দুর্নীতির উৎস খুঁজতে সোমবার কলকাতার চার জায়গায় তল্লাশি ইডির

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রেশন দুর্নীতিতে (Ration Scam) ইডির হাতে গ্রেফতার শংকর আঢ্য এর আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত নথি খুঁজতে সোমবার কলকাতার ৪ জায়গায় একযোগে তল্লাাশি শুরু করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। ধর্মতলা এলাকার চৌরঙ্গী লেন, কলিন স্ট্রিট, তালতলা ছাড়াও সল্টলেকের সেক্টর ফাইভে শংকর আঢ্যর চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টের অফিসেও ইডি (ED) আধিকারিকরা তল্লাশি চালিয়েছেন সকাল থেকে। অফিসের সমস্ত নথিপত্র ঘেঁটে আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত তথ্য পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা। ধর্মতলা এলাকার মারকুইস স্ট্রিটের ‘আঢ্য ফোরেক্স প্রাইভেট লিমিটেড’-এর বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময় কেন্দ্রের অফিসে যান ইডির আধিকারিকরা। ১১২, কলিন স্ট্রিটের কাছেই একটি হোটেলের বিল্ডিংয়ে এই অফিস।

১১এ, চৌরঙ্গী লেন। এই ঠিকানায় ‘এসআর আঢ্য ফিনান্স প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে এক সংস্থায় কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে অভিযান চালায় কেন্দ্রীয় সংস্থা। এটি বনগাঁর প্রাক্তন পুরপ্রধান শংকর আঢ্যর (Shankar Adhya) অফিস বলেই মনে করা হচ্ছে। এছাড়া কলিন স্ট্রিটেও তাঁর কার্যালয় রয়েছে। পাশাপাশি সল্টলেক (Salt Lake) সেক্টর ফাইভে শংকর আঢ্যর হিসাবরক্ষক অরবিন্দ সিংয়ের অফিস। সেখানেও এদিন তল্লাশি চালিয়েছেন ইডি আধিকারিকরা। এখানেই গুরুত্বপূর্ণ নথি মিলতে পারে বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা। আর এসবই রেশন দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলায় তদন্তে আরও গতি এনে দিতে পারে বলে আশা।

Advertisement

রেশন দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে ধৃত প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা ও বেআইনি লেনদেনের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে বনগাঁর বাড়ি থেকে গত সপ্তাহে গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন পুরপ্রধান শংকর আঢ্যকে। তিনি রেশন দুর্নীতি এবং এলাকার একাধিক বেআইনি লেনদেন, সীমান্তে বেআইনিভাবে মুদ্রা বিনিময় বা ফোরেক্স ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বলে অভিযোগ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ