জেলা 

ফিলিস্তিনিদের হত্যার প্রতিবাদ জানালো ইসলামী গবেষণা পরিষদ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রায় ১৫ হাজারের অধিক ফিলিস্তিনি শিশু ও নারীদের নৃশংসভাবে হত্যা এবং গাজা ভূখণ্ডকে মৃত্যু নগরীতে পরিণত করার প্রতিবাদে ইজরায়েলী বর্বরদের প্রতি ধিক্কার জানালো ইসলামী গবেষণা পরিষদ l এবং মজলুম ফিলিস্তিনের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে দোয়া করা হয় l

দোয়া করেন পরিষদের সভাপতি মুফতি জোবায়ের কাসেমী। উপস্থিত ছিলেন ইসলামী চিন্তাবিদ মাওলানা আব্দুল হামিদ কাসেমী গবেষণার পরিষদের গবেষকগণ l এদিন পরিষদ ও নব তা’লীমের সম্পাদক আজিজুল হক জানান, আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ বিকালে আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে দিয়ে নব তা:লীমের রমমান সংখ্যা প্রকাশ হবে ইনশাআল্লাহ।

Advertisement

ইসলামী গবেষণা পরিষদের সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন,হে বিশ্ববাসী,,,আমরা মুসলিম জাতি, পৃথিবী ধ্বংসের প্রাককালে নানা মত নানা রং নানান সংস্কৃতি,,সব মিলিয়ে এক হবে সেটাই মুসলিম জাতি।।। আমাদের সাথে ইহুদীবাদীদের যুদ্ধ হবে একাধিক,পৃথিবী দুই ভাগে বিভক্ত হবে এক দাজ্জাল পন্থী ইহুদী ও সহচরী দুই ইসলাম পন্থী খাঁটি মুসলমান ও নবী প্রেমিক ,, মোনাফেক খৃষ্টান মুশরিক কাফের এই দুই দলের মধ্যে কোন একটির সঙ্গে যোগ দেবে,,উথ্থান পতন বিজয় পরাজয় আনন্দ দুঃখ উভয়কে লালন করতে করতে ইমাম মাহদী আলাইহিস সালামের হঠাৎ আগমন হবে, অন্য দিকে ছোট ছোট দাজ্জাল তথা ধোঁকাবাজ চিটিংবাজ সংঘর্ষ করতে করতে নৈরাশ্য দৃষ্টিগোচর হবে তখনই আসল কানা দাজ্জালের আবির্ভাব হবে।।যাকে ঈশি শক্তি দেওয়া হবে,সর্ব স্থানে দ্রুত গতিতে যাবে এবং বিপুল সংখ্যক মানুষ তার প্ররোচনায় পড়ে বেঈমান হবে, আমরা তাকে আটকাতে পারব না, আল্লাহর আদেশে হযরত ঈসা আলাইহিস সালাম আকাশ হতে অবতরণ করে দাজ্জালকে ইসরাইল নগরীর লুদ নামী গেটে হত্যা করবে, তার পর ইহুদী নিধন শুরু হবে ।গাছ পালা তরু লতা পাহাড় পর্বত পাথর মাটি সবাই ইহুদীদের বিপক্ষে আওয়াজ দিয়ে বলবে,,,হে মুসলিম আমার আড়ালে ইহুদী লুকিয়ে আছে হত্যা করো, শুধু গরক্বদ নামী গাছ তাদের পক্ষে থাকবে তাই প্রত্যেক ইহুদীর বাড়িতে ঐ গাছ লাগানো হচ্ছে।। একদিকে তারা আমাদের শত্রু অপরদিকে আমাদের হাদীসের কথা অক্ষরে অক্ষরে বিশ্বাস করে ।। এখন আমাদের ঈমান ও আমলের দূর্বলতা আর বিশ্ব অনৈক্য ও বিচ্ছিন্নতা যত দ্রুত নিষ্পত্তি হবে তত দ্রুত গতিতে ইসলামের বিজয় হবে।।। মতাদর্শ দল মত পথ ভুলে গিয়ে উম্মতে মুহাম্মদী তথা বিশ্ব উম্মাহ এক রশিতে আবদ্ধ হতে হবে, কলেমার ঝান্ডাতলে সবাই কে আসতে।। সাম্প্রতিক সময়ে সাম্য ও ঐক্যের আহ্বান জানাই সবাই কে,,হিংসা বিদ্বেষ জাত পাত মত পিছনে রেখে ঐক্যের পথে এগিয়ে চলো,, এগিয়ে চলো,,হে মুসলমান ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ