কলকাতা 

বুদ্ধিজীবীদের পত্রবোমাকে স্বাগত জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় , বিশিষ্টরাই বড় দেশদ্রোহী কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের ;

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : বুধবার দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখে রামের নামে মানুষ হত্যার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন দেশের প্রথম সারির ৪৯ জন বুদ্ধিজীবী । তাদের এই পত্রবোমায় অস্বস্তিতে পড়ে যায় কেন্দ্র সরকার ।

এর প্রতিক্রিয়ায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এক বিবৃতিতে জানিয়ে দেয় শিল্পী, ঐতিহাসিক ও লেখকরা তাঁদের চিঠিতে যে দাবি করেছেন তা পুরোপুরি অসত্য৷ এরকম উদ্বেগের কোনও কারণ নেই৷ ভারত নিজের গণতান্ত্রিক ও ধর্ম নিরপেক্ষ রূপ এখন বজায় রেখেছে, ভবিষ্যতেও তাই রাখবে৷

অসহিষ্ণুতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিদ্বজ্জনেরা চিঠি দেওয়ায় খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, সঙ্গত কারণেই সরব হয়েছেন বুদ্ধিজীবীরা। এটা একেবারে সঠিক সময়। সবাই জানে দেশে কী চলছে।’ কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধে মমতা বলেন,’সবাই জানে দেশে কী চলছে। সবাইকে সম্মান করি। কেউ কেউ আমায় সমর্থন করে, কেউ বিরোধিতা। ওনাদের আশঙ্কার সঙ্গত কারণ রয়েছে। এটাই সরব হওয়ার সঠিক সময়। যে কোনও নাগরিকই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিতে পারেন।’

তবে চিঠি পাঠানোকে কেন্দ্র করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘বিশিষ্টরাই সবথেকে বড় দেশদ্রোহী। বিশিষ্টরা হল পরজীবী। সবথেকে বড় চামচা।’ এই নেতার আক্রমণের পরেই প্রাণনাশের হুমকি পেলেন কৌশিক সেন।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment