দেশ 

মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দুবে ও তাঁর আইনজীবীকে তলব করল এথিক্স কমিটি

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে স্পিকারের কাছে অভিযোগ করেছিলেন বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দূবে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে এথিক্স কমিটিকে তদন্ত করার দায়িত্ব দেন লোকসভার স্পিকার। তদন্ত করার স্বার্থেই এবার এথিক্স কমিটি অভিযোগকারী বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দুবে এবং তাঁর আইনজীবী জয় অনন্ত দেহাদরিরকেও আগামী ২৬শে অক্টোবর সংসদে সশরীরে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

টাকার বিনিময়ে প্রশ্ন করার অভিযোগে মহুয়া মৈত্রর সাংসদ পদ খারিজের দাবি তুলে স্পিকারকে চিঠি লিখেছিলেন বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দুবে। তাঁর দাবি ছিল, তৃণমূলের এই সাংসদ অর্থ ও উপহারের বিনিময়ে লোকসভায় আদানিদের (Adani Group) বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলেছিলেন। পাশাপাশি লোকসভা থেকে আপাতত তাঁকে সাসপেন্ড করার দাবিও তোলেন নিশিকান্ত। বিজেপি সাংসদের সেই চিঠি এথিক্স কমিটির কাছে পাঠিয়েছিলেন লোকসভার স্পিকার। সেই চিঠির ভিত্তিতে নিশিকান্তকে সাক্ষ্যপ্রমাণ দেখানোর জন্য তলব করল সংসদের এথিক্স কমিটি।

Advertisement

একা নিশিকান্ত নন, মহুয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত চেয়ে সিবিআইকে চিঠি দেন আইনজীবী জয় অনন্ত দেহাদরিও। তিনিই তৃণমূল সাংসদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আনেন। সেই আইনজীবীকেও তথ্যপ্রমাণ-সহ তলব করেছে সংসদের এথিক্স কমিটি। আগামী দিনে মহুয়াকেও তলব করা হতে পারে।

মহুয়া আগেই নিশিকান্ত এবং আইনজীবী জয় অনন্ত দেহাদরির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন। এমনটা যে হতে চলেছে, তেমন ইঙ্গিত অবশ্য মহুয়া আগেই দিয়েছিলেন। এক্স হ্যান্ডেলে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছিলেন, “এই সব ভুয়ো ডিগ্রিওয়ালা এবং বিজেপির (BJP) তথাকথিত প্রাজ্ঞদের বিরুদ্ধে বহু সুবিধা লঙ্ঘনের অভিযোগের বিচার বাকি আছে। আমার বিরুদ্ধে যে কোনও প্রস্তাব আপনারা সংসদে আনতে পারেন। তবে আশা করব তার আগে মাননীয় স্পিকার এই বকেয়া বিষয়গুলো মেটাবেন।”


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ