জেলা 

ব্যবসায়ী ও বিজেপি নেতা রাজু ঝাকে গুলি করে খুন করার পর আততায়ীরা কোন পথে পালালেন?

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : পূর্ব বর্ধমানের শক্তিগড়ের ল্যাংচা হাবে শনিবার সন্ধ্যায় বিজেপি নেতা তথা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রাজু ঝাঁকে গুলি করে খুন করার পর আততায়ীরা গাড়ি ফেলে পালিয়ে গেছে। যে গাড়ি থেকে রাজুকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়েছিল, সেই গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় মিলল রাস্তার ধার থেকে। আততায়ীরা গাড়িটি ফেলে অন্য পথে চম্পট দিয়েছেন বলে অনুমান করছে পুলিশ।

রবিবার সকালে শক্তিগড় রেল স্টেশনের রাস্তায় সেই নীল গাড়িটি খুঁজে পেয়েছে পুলিশ। তারা জানিয়েছে, গাড়ির নম্বরপ্লেটটি ভুয়ো। পুলিশের অনুমান, প্রথমে আততায়ীদের সড়কপথেই কলকাতার দিকে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু রাস্তার মোড়ে মোড়ে নাকা চেকিংয়ের সময় ধরা পড়ে যাওয়ার ভয়ে তাঁরা পরিকল্পনা বদল করেন। রেল স্টেশনের রাস্তায় গাড়িটি ফেলে রেখে রাজুর আততায়ীরা ট্রেনে উঠে পালিয়ে গিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে খবর, শনিবার রাত ৮টা নাগাদ একটি সাদা চারচাকা গাড়ি শক্তিগড়ের ল্যাংচা হাবে দাঁড়িয়ে ছিল। গাড়িতে ছিলেন চার জন। সেই সময় কলকাতাগামী একটি নীল রঙের গাড়ি থেকে গুলি ছোড়া হয়। স্থানীয়দের দাবি, চার থেকে পাঁচটি গুলি চালানো হয়। চালকের পাশের আসনে রাজু বসেছিলেন। মূলত তাঁকে নিশানা করা হয়। আরও এক জন গুলিতে জখন হন। দু’জনকেই বর্ধমানের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে রাজুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ