কলকাতা 

DA ধর্না মঞ্চে আক্রান্ত নওশাদ সিদ্দিকী! বিধায়কের নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : ফের আক্রান্ত পীরজাদা নওশাদ সিদ্দিকী। আজ শনিবার আইএসএফের বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকী শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত মহার্ঘ ভাতার দাবিতে সরকারি কর্মচারীদের অনশন মঞ্চে যোগ দেন। সেই মঞ্চে যখন তিনি ভাষণ দিয়েছিলেন সেই সময়কে এক ব্যক্তি ছুটে এসে তাকে জিজ্ঞাসা করেন সংখ্যালঘুদের জন্য আপনি করেছেন তাকে ই তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। এর ফলে নওশাদ সিদ্দিকীর নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে  কলকাতা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এদিন ধর্মতলায় সরকারি কর্মীদের যৌথ মঞ্চে অনশনে বসেছিলেন ভাঙড়ের বিধায়ক। দুপুরে তিনি বক্তব্য রাখতে ওঠেন মঞ্চে। সেসময়ই তাঁর সামনে এসে এক ব্যক্তি তাঁকে ধাক্কা মারে। শোরগোল পড়ে যায় মঞ্চে। কিন্তু আক্রমণের মুখে পড়েও ‘গান্ধীগিরি’ দেখালেন নওশাদ। হামলাকারীকে পালটা মারে বাধা দিলেন তিনি। তবে ওই যুবক কে, কেন আচমকা ভাঙড়ের বিধায়ককে ধাক্কা দিলেন, তা এখনও জানা যায়নি।

Advertisement

কেন্দ্রীয় হারে ডিএ পাওয়ার দাবিতে ৫১ দিন ধরে ধর্মতলায় (Dharmatala)শহিদ মিনারে আন্দোলন চালাচ্ছে সরকারি কর্মীদের একাংশ। শনিবার সকালে সেই মঞ্চে পৌঁছে যান ভাঙড়ের আইএসএফ (ISF) বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকি। আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়ে তিনিও সূর্যাস্ত পর্যন্ত উপবাস করার কথা বলেন। সারাদিন মঞ্চেই ছিলেন নওশাদ। দুপুর গড়াতেই বাঁধল বিপত্তি। হামলার মুখে পড়লেন তিনি।

দুপুর নাগাদ সংগ্রামী যৌথ মঞ্চে উঠে বক্তব্য রাখছিলেন নওশাদ সিদ্দিকি। জনগণের জন্য কাজের কথা বলছিলেন তিনি। আচমকাই এক যুবক তাঁর দিকে এগিয়ে আসেন। নওশাদকে প্রশ্ন করেন, ”আপনি সংখ্যালঘুদের জন্য কী করেছেন?” তাতে নওশাদ ভালভাবেই উত্তর দেন, ”আলাদা করে সংখ্যালঘুদের জন্য কিছু বলছি না, সকলের জন্যই বলছি।” এরপরই যুবক ক্ষুব্ধ হয়ে একেবারে সামনে থেকে নওশাদকে ধাক্কা দেন। সঙ্গে সঙ্গে নওশাদকে ঘিরে থাকা ব্যক্তিরা সকলে রে রে করে তেড়ে যান। কিন্তু তাঁদের আটকে নওশাদ বলতে থাকেন, ”ওঁকে কিছু করবেন না।”

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ