জেলা 

বিধানসভা নির্বাচনের আগে দর বাড়াতে নিজেই নিজের উপর হামলা করিয়েছিলন ফিরোজ কামাল গাজী ওরফে বাবু মাস্টার! গ্রেপ্তারিতে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  বসিরহাটের বাবু মাস্টার শাসক দলের কল্যাণে বাঘে=গরুদে একত ঘাটে জল খাওয়াতেন বলে প্রচার ছিল । কিন্ত গত বিধানসভা নির্বাচনে নিজের সুবিধার জন্য যোগ দিয়েছিরেন বিজেপিতে । সেই বিজেপি নেতা বিধানসভা নির্বাচনের কয়েক দিন আগে আক্রান্ত হয়েছিলেন মিনাখাঁ হাইওয়েতে । তা নিয়ে সংবাদপত্রে অনেক লেখালেখি প্রকাশ হয়েছে । শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এই আক্রমনের নেপথ্যে রয়েছে বলে বিজেপি ফলাও করে প্রচারও করেছিল । কিন্ত এই বাবু মাস্টার গ্রেফতার হওয়ার পরেই জানা যাচ্ছে বিধানসভা নির্বাচনের আগে তাঁর উপর যে হামলা হয়েছে তার পেছনে ছিল তিনি নিজেই ছিলেন বলে সূত্রের খবর ।

শুক্রবার  বাবু মাস্টারকে গ্রেপ্তার করে বিধাননগর দক্ষিণ থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, আগামী ২২ জানুয়ারি চার পুরনিগমে ভোট। তার মধ্যে রয়েছে বিধাননগরও। ভোটের আগে নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে নাকা তল্লাশি চালাচ্ছিল পুলিশ। সেই সময় রাস্তার ধারে একটি গাড়িকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয় তাদের। তল্লাশি চালাতেই বেরিয়ে আসে আগ্নেয়াস্ত্র-সহ কার্তুজ। গাড়িতে তখন ছিল বসিরহাটের দাপুটে নেতা বাবু মাস্টার-সহ আরও দু’জন -জয়ন্ত গায়েন ও আমজাদ গাজী। শনিবার ধৃতদের বিধাননগর আদালতে তোলা হলে তিন দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

পুলিশের বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, গত বিধানসভা নির্বাচনের মুখে বাবুমাস্টারের উপর হামলার ঘটনা ছিল পূর্ব পরিকল্পিত। যার মাস্টারমাইন্ড বাবুমাস্টার নিজেই। রাজনীতির পালে হাওয়া লাগাতে ওই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছিল সে। পরবর্তীকালে ধৃত অভিযুক্তরাও পুলিশি জেরায় সে কথা স্বীকার করে বলে জানা গিয়েছে। পুলিশি তদন্তেও উঠে আসে একই তথ্য। তাহলে কি সেই অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ করতেই কি এই গ্রেপ্তারি, উঠছে প্রশ্ন।
উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের হাসনাবাদ-হিঙ্গলগঞ্জের দাপুটে নেতা এই ফিরোজ কামাল গাজী ওরফে বাবু মাস্টার। রাজনৈতিক জীবনের প্রথমে সিপিআই করলেও পরে সিপিএমে যোগ দেয়। একাধিক অভিযোগে অভিযুক্ত। সে সময় বিরোধী রাজনৈতিক স্বর একেবারে স্তব্ধ করে দিয়েছিল নিজের এলাকায়। কিন্তু রাজ্যের রাজনৈতিক পালাবদলের পর জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের হাত ধরে যোগ দেয় তৃণমূলে। গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে সে বিজেপিতে যোগ দেয়। পরে অবশ্যও বিজেপিও ছাড়ে সে। এহেন বাবু মাস্টারের গ্রেপ্তারি ঘিরে উঠছে একাধিক প্রশ্ন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ