দেশ 

প্রবল বর্ষণে উত্তরাখন্ডে মৃত ৪৬, চার লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ ঘোষণা সরকারের, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে যাচ্ছেন অমিত শাহ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মেঘ ভাঙা বৃষ্টির জেরে  বিধ্বস্ত উত্তরাখণ্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬। বহু লোক নিখোঁজ। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (NDRF)। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ধস সরিয়ে নতুন করে নৈনিতালের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন সম্ভব হয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আজ, বুধবার বিকেলে দেবভূমে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ )।

গত ১৭ অক্টোবর থেকে টানা বৃষ্টি হয়ে চলেছে উত্তরাখণ্ডে (Uttarakhand)। আর তার জেরেই বন্যার পরিস্থিতি তৈরি হয় গোটা রাজ্যে। মঙ্গলবার ডিআইজি নিলেশ আনন্দ ভার্নে জানিয়েছিলেন, কুমাউন এলাকায় ৪০ জন বেশি প্রাণ হারিয়েছেন। তবে বর্তমানে সেখানে জলস্তর খানিকটা কমেছে। কিন্তু পরিস্থিতি এখনও সংকটজনক। এখনও পর্যন্ত বন্ধ ওই এলাকার সমস্ত রাস্তা। অত্যন্ত তৎপরতার সঙ্গে কাজ করছে NDRF, SDRF-এর বিভিন্ন দল। হাজারেরও বেশি মানুষকে উদ্ধার করে নিরাপদে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়েছে।

এদিকে মোট মৃতের ৪৬ জনের মধ্যে ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে নৈনিতালে, আলমোরায় প্রাণহানি ৬জনের। এছাড়াও চম্পাওয়াত, উধম সিং নগর, বাগেশ্বরেও গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। দেবভূমের করুণ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি। মঙ্গলবার আকাশপথে বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন তিনি। পাশাপাশি গত দু’দিনে প্রাকৃতির দুর্যোগে মৃত্যু হয়েছে, এমন নিহতদের পরিবারের জন্য ৪ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যও ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ