প্রচ্ছদ 

আমরা নতুন ভারত গড়বো, সবাই মিলে কুরবানী দেব , কিন্তু দেশ ভাগ হতে দেব না ঈদের জামাতে মুখ্যমন্ত্রী র আহ্বান 

শেয়ার করুন
  • 211
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি :  আজ সকাল ৯টায়পবিত্র ঈদ উল ফিতরের সব চেয়ে বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয় কলকাতার রেড রোডে। ক্বারী ফজলুর রহমানের ইমামতিতে এই নামাজে শরিক হয়েছিলেন কয়েক লক্ষ মুসল্লী। নামাজ শেষে উপস্থিত মুসল্লিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে হাজির হন পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তাঁর সঙ্গে ছিলেন পূর মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়, মন্ত্রী জাভেদ খান, পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার প্রমূখ। ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির নাম না করে কেন্দ্রের শাসক দলকে আক্রমন করে বলেন ২০১৯শে সব ঘৃণার অবসান হবে।আমরা নতুন ভারত গড়বো, সবাই মিলে কুরবানী দেব কিন্তু দেশ ভাগ হতে দেব না।আমাদের মা বাবারা সবার সঙ্গে কাজ করার শিক্ষা দিয়েছেন।ভালোবাসার মধ্য দিয়ে সবাই কে আপন করতে হবে।জীবনে অনেক দুঃখ, দুর্দশা আসে তারপরেও খুশির ঈদ আসে।তিনি সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকার কে কটাক্ষ করে বলেন আজ নীতি আয়োগের বৈঠক ছিল দিল্লীতে। তারিখ পরিবর্তন করার কথা বললাম।ঈদের দিন, ঈদের সঙ্গে কোনো আপস করবো না।তিনি দৃঢ় কণ্ঠে বলেন, মুসলমানদের ভালোবাসি বলে ,ওরা কখনো আমাকে গালি দেয় । আপনারা শুধু হিন্দুদের ভালোবাসবেন মুসলিম দের ঘৃণা কেন?  হিন্দুদের ভালবাসা মানে কী মুসলমানদের ঘৃণা করা? তিনি বলেন,কেউ প্ররোচনা সৃষ্টি করলে আমাকে বলুন, আমার একটা ইশারায় কাফি।এত ভয়ের কিছু নেই আমি আছি দেখি কার কত জোর।তিনি মুসল্লিদের উদ্দেশ্য বলেন আপনারা নামাজ পড়েন, রোজা রাখেন, আজান দেন।আপনারা যা করেন আমরা তা করতে পারবো না।ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় মঞ্চকে রাজনৈতিক মঞ্চ হিসাবে ব্যবহার করে ২০১৯-র সাধারণ নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে এনে নাম না করে বিজেপিকে আক্রমন করে বলেন, ২০১৯শেই সব ঘৃনার অবসান ঘটবে।


শেয়ার করুন
  • 211
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment